সকল শিরোনাম

রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ঢাকায় বিয়ে উৎসব, অংশ নেবেন কারা? ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু গোটা বিশ্বই ধ্বংস হবে মশা মারার ওষুধ কতটা কার্যকর? সশস্ত্র বিক্ষোভের শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে সতর্কতা বিটিএমসিতে অনিয়ম ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে দল ঘোষণা আমাকে বিয়ে করবে? শ্রীলেখা ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদ ২০ শতাংশ নির্ধারণ ১১৬৮ নমুনায় ৮৮ আক্রান্ত করোনা কেড়ে নিল আরও ২১ প্রাণ বার্সেলোনার সভাপতি নির্বাচন স্থগিত ভোটে সক্রিয় ছিল না বিএনপি টাকা যাঁর, টিকা তাঁর এমন যেন না হয়… ওবায়দুল কাদেরের ভাই কাদের মির্জা জয়ী মানুষের দারিদ্র্যের অন্যতম কারণ উপার্জনে সুযোগের সীমাবদ্ধতা আমদানি বৃদ্ধিতে অর্থনীতিতে স্বস্তির ইঙ্গিত তৈরি পোশাকের ক্রেতাদের এগিয়ে আসার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর স্বামীর প্ররোচনায় স্ত্রীর আত্মহত্যা করোনা ভ্যাকসিন জানুয়ারিতেই পাব ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী হোটেলে আটকে রেখে তরুণীকে ২ বন্ধুর পালাক্রমে ধর্ষণ ১৯ জানুয়ারী থেকে যুক্তরাজ্যে সব ধরণের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা


জান্নাত ও জাহান্নামের অস্তিত্ব

| ১২ চৈত্র ১৪২৩ | Sunday, March 26, 2017

মাওলানা মুনীরুল ইসলাম :: মানুষের চূড়ান্ত ও চিরস্থায়ী আবাস জান্নাত ও জাহান্নামের অস্তিত্ব সম্পর্কে কোরআন-হাদিসে অনেক প্রমাণ রয়েছে। মিরাজের ঘটনায় হজরত আনাস (রা.) রাসুলুল্লাহ (সা.) থেকে বর্ণনা করেন, ‘…তারপর জিবরাইল (আ.) আমাকে নিয়ে চলতে থাকে। সিদরাতুল মুনতাহা পর্যন্ত পৌঁছলে তাকে কিছু রঙ এসে ঢেকে ফেলে। আমি বুঝতে পারিনি এটি কী? তারপর আমি জান্নাতে প্রবেশ করলাম। জান্নাতকে আমি দেখতে পেলাম মণি-মুক্তার গম্বুজ। আরও দেখতে পেলাম জান্নাতের মাটি হলো মিসক’ (বুখারি: ৩৩৪২, মুসলিম: ১৬২)।



এ হাদিসটি আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের পক্ষে প্রমাণস্বরূপ। তারা বলেন, জান্নাত ও জাহান্নাম মাখলুক তথা আল্লাহর সৃষ্টি এবং জান্নাত আসমানে অবস্থিত।  হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, আল্লাহ তায়ালা জান্নাত ও জাহান্নাম সৃষ্টি করার পর জিবরাইল (আ.) কে জান্নাতে পাঠান এবং বলেন, তুমি জান্নাতের দিকে তাকাও এবং দেখ আমি জান্নাতে জান্নাতিদের জন্য কী কী তৈরি করে রেখেছি। তারপর তিনি জান্নাতে প্রবেশ করেন এবং আল্লাহ তায়ালা জান্নাতিদের জন্য কী কী তৈরি করে রেখেছেন তা দেখেন। তারপর আল্লাহ তায়ালা বলেন, তুমি এখন জাহান্নামে প্রবেশ কর। আল্লাহর কথায় তিনি জাহান্নামে প্রবেশ করলেন, আল্লাহ বললেন, দেখ আমি জাহান্নামিদের জন্য কী কী তৈরি করে রেখেছি। তারপর তিনি জাহান্নামের দিকে তাকিয়ে দেখেন, জাহান্নামের এক অংশ অপর অংশের উপর দাপাদাপি করছে (তিরমিজি : ২৫৬০, নাসায়ি : ৩৭৭২)।



ইমাম তাহাবী (রহ.) বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, জান্নাত ও জাহান্নাম আল্লাহর মাখলুক, কখনো তা ধ্বংস হবে না এবং ক্ষয় হবে না। কারণ, আল্লাহ মাখলুককে সৃষ্টির পূর্বে জান্নাত ও জাহান্নাম সৃষ্টি করেন। আর জান্নাত ও জাহান্নাম উভয়টির জন্য তিনি মাখলুক থেকে অধিবাসী সৃষ্টি করেন। যাদের তিনি জান্নাত দেবেন তা হবে তার পক্ষ থেকে তাদের প্রতি অনুগ্রহ। আর যাদের তিনি জাহান্নামে দেবেন তা হবে তার প্রতি আল্লাহর পক্ষ থেকে ইনসাফ। প্রত্যেকেই তার সুবিধা অনুযায়ী আমল করবে এবং তাকে যেজন্য সৃষ্টি করা হয়েছে সে দিকে ধাবিত হবে। আর ভালো ও মন্দ বান্দার উপর নির্ধারিত (আকিদাতুত তহাবি, পৃষ্ঠা ১২)।



সুতরাং মহান আল্লাহর সৃষ্টি জান্নাত ও জাহান্নামের অস্তিত্ব সম্পর্কে সংশয় পোষণ করার কোনোই সুযোগ নেই।



লেখক : কবি ও ধর্মীয় গবেষক