সর্বশেষ সংবাদ: রূপগঞ্জে পানি দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনাসভা ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে কিশোর গ্যাং সদস্যরা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ কানাডা-আমিরাতে ঢুকতে না পেরে ফিরে আসছেন ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে ——- তারা‌বো পৌরসভার মেয়র হা‌সিনা গাজী সোনারগাওঁয়ের সাদিপুর ইউ,পিতে ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ০৪ পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু

সকল শিরোনাম

রূপগঞ্জে পানি দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনাসভা ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত মাদক,সন্ত্রাস ও ইভটিজিং নির্মূলে খেলাধূলার ভূমিকা অপরিসীম- কাউন্সিলর…মাহমুদুল হাসান পলিন রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে কিশোর গ্যাং সদস্যরা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ কানাডা-আমিরাতে ঢুকতে না পেরে ফিরে আসছেন ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে ——- তারা‌বো পৌরসভার মেয়র হা‌সিনা গাজী সোনারগাওঁয়ের সাদিপুর ইউ,পিতে ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ০৪ পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ঢাকায় বিয়ে উৎসব, অংশ নেবেন কারা? ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু গোটা বিশ্বই ধ্বংস হবে মশা মারার ওষুধ কতটা কার্যকর? সশস্ত্র বিক্ষোভের শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে সতর্কতা বিটিএমসিতে অনিয়ম ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে দল ঘোষণা আমাকে বিয়ে করবে? শ্রীলেখা ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদ ২০ শতাংশ নির্ধারণ ১১৬৮ নমুনায় ৮৮ আক্রান্ত করোনা কেড়ে নিল আরও ২১ প্রাণ বার্সেলোনার সভাপতি নির্বাচন স্থগিত ভোটে সক্রিয় ছিল না বিএনপি টাকা যাঁর, টিকা তাঁর এমন যেন না হয়… ওবায়দুল কাদেরের ভাই কাদের মির্জা জয়ী

আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল রোজা

| ১১ বৈশাখ ১৪২৭ | Friday, April 24, 2020

আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল রোজা

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক  : আজ শুক্রবার চাঁদ দেখা গেলে কাল শনিবার থেকে দেশে পবিত্র রমজান মাস শুরু হবে। চাঁদ না দেখা গেলে রজব মাস ৩০ দিনে সম্পন্ন হওয়ার পর রোজা শুরু হবে রবিবার থেকে। আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা আহ্বান করা হয়েছে। তার আগে দেশের কোথাও রমজান মাসের চাঁদ দেখা গেলে তা টেলিফোনে অথবা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে জানাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের (ইফা) পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহকারী জনসংযোগ কর্মকর্তা শায়লা শারমীন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘আরবি ১৪৪১ হিজরি সালের রমজান মাসের চাঁদ দেখা নিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় (বাদ মাগরিব) সভা হবে। সভায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আবদুল্লাহ সভাপতিত্ব করবেন। দেশের কোথাও পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা গেলে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের দেওয়া নম্বরে কল করে অথবা নিকটস্থ প্রশাসন বা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিকে জানাতে অনুরোধ করা হয়েছে।’ টেলিফোন নম্বরগুলো হলো : ৯৫৫৯৪৯৩, ৯৫৫৫৯৪৭, ৯৫৫৬৪০৭, ৯৫৫৮৩৩৭। এছাড়া ফ্যাক্স নম্বর : ৯৫৬৩৩৯৭ ও ৯৫৫৫৯৬১।

মাদারীপুরের ৫০ গ্রামের মানুষ রোজা রাখছেন আজ : মাদারীপুর সংবাদদাতা জানিয়েছেন, সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে মিল রেখে হযরত সুরেশ্বরী (রা.)-এর ভক্ত-অনুসারী মাদারীপুরের ৫০ গ্রামের অর্ধলক্ষাধিক মানুষ আজ রোজা রাখছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সুরেশ্বর দায়রা শরিফের প্রধান গদিনশীন পীর ও আন্তর্জাতিক চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি আলহাজ খাজা শাহ্ সুফি সৈয়্যদ নূরে আক্তার হোসাইন। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রমজান মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ায় সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের মানুষ আজ রোজা রাখছেন। তাই সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার সুরেশ্বর দরবার শরিফের প্রতিষ্ঠাতা হযরত জানশরীফ শাহ্ সুরেশ্বরী (রা.)-এর অনুসারী মাদারীপুর ও শরীয়তপুরসহ দেশের প্রায় এক কোটি মুসলমান আজ রোজা রাখছেন। করোনাভাইরাসের কারণে সরকারি নির্দেশনা মেনে সবাইকে তারাবির নামাজ ঘরে বসেই পড়ারও আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

সুরেশ্বর দরবার শরিফের প্রতিষ্ঠাতা হযরত জান শরীফ শাহ্ সুরেশ্বরী (রা.)-এর অনুসারীরা প্রায় দেড়শ বছর আগে থেকে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে রোজা রাখেন এবং ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজাহা উদযাপন করে আসছেন।

মাদারীপুরের ওই এলাকাগুলো হলো সদর উপজেলার পাঁচখোলা, জাজিরা, মহিষেরচর, জাফরাবাদ, চরকালিকাপুর, তাল্লুক, বাহেরচরকাতলা, চরগোবিন্দপুর, আউলিয়াপুর, ছিলারচর, কুনিয়া, মস্তফাপুর; কালকিনির সাহেবরামপুর, আণ্ডারচর, আলীনগর, বাঁশগাড়ী, খাসেরহাট, আউলিয়াপুর, রামারপোল, ছবিপুর, ছিলিমপুর, ক্রোকিরচর, সিডিখান, কয়ারিয়া, রমজানপুর, বাটামারা, রাজারচর; শিবচরের পাচ্চর, স্বর্ণকারপট্টিসহ জেলার চারটি উপজেলার ৫০টি গ্রাম।