সকল শিরোনাম

রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ঢাকায় বিয়ে উৎসব, অংশ নেবেন কারা? ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু গোটা বিশ্বই ধ্বংস হবে মশা মারার ওষুধ কতটা কার্যকর? সশস্ত্র বিক্ষোভের শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে সতর্কতা বিটিএমসিতে অনিয়ম ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে দল ঘোষণা আমাকে বিয়ে করবে? শ্রীলেখা ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদ ২০ শতাংশ নির্ধারণ ১১৬৮ নমুনায় ৮৮ আক্রান্ত করোনা কেড়ে নিল আরও ২১ প্রাণ বার্সেলোনার সভাপতি নির্বাচন স্থগিত ভোটে সক্রিয় ছিল না বিএনপি টাকা যাঁর, টিকা তাঁর এমন যেন না হয়… ওবায়দুল কাদেরের ভাই কাদের মির্জা জয়ী মানুষের দারিদ্র্যের অন্যতম কারণ উপার্জনে সুযোগের সীমাবদ্ধতা আমদানি বৃদ্ধিতে অর্থনীতিতে স্বস্তির ইঙ্গিত তৈরি পোশাকের ক্রেতাদের এগিয়ে আসার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর স্বামীর প্ররোচনায় স্ত্রীর আত্মহত্যা করোনা ভ্যাকসিন জানুয়ারিতেই পাব ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী হোটেলে আটকে রেখে তরুণীকে ২ বন্ধুর পালাক্রমে ধর্ষণ ১৯ জানুয়ারী থেকে যুক্তরাজ্যে সব ধরণের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা


টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে বিকল্প ভাবনা আইসিসি’র

| ৮ বৈশাখ ১৪২৭ | Tuesday, April 21, 2020

 

 

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের কারনে আগামী অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে শঙ্কা জাগছে। বর্তমান পরিস্থিতি ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকলে বিশ্বকাপ এক বছর পিছিয়ে দেয়ার পরামর্শ ইতোমধ্যেই দিয়ে রেখেছেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু এখনই বিশ্বকাপ পিছিয়ে দেয়া নিয়ে ভাবতে রাজি নয় ক্রিকেটের প্রধান সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। বিশ্বকাপ আয়োজনের ব্যাপারে আশাবাদী তারা। পাশাপাশি বিশ্বকাপের জন্য বিকল্প চিন্তা-ভাবনা করছে আইসিসি।

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ১৮ অক্টোবর থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসের কারণে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। এছাড়া আরও অন্যান্য ইভেন্টও সমস্যায় পড়তে পারে। তবে বিশ্বকাপ নিয়ে আইসিসির হাতে এখনো কিছুটা সময় আছে এবং নির্ধারিত সময়ে শুরুর জন্য প্রস্তুত তারা। কিন্তু পরিকল্পনা পরিবর্তন হতে পারে।

আইসিসির এক মুখপাত্র বলেন, ‘আইসিসির ইভেন্টগুলো নির্ধারিত সুচি অনুযায়ী আয়োজনে আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। যে অবস্থায় আছে, তা চালিয়ে যাবার জন্য আমরা পরিকল্পনা করছি। তবে দ্রত পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে একটি বিচক্ষণ ও দায়িত্বশীল জরুরী পরিকল্পনা আমরা গ্রহণ করেছি।’

‘মহামারীর উপর ভিত্তি করে আমাদের কাছে সকল বিকল্প পথ আছে। আমরা বিশেষজ্ঞ ও কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পরামর্শ নেয়ার কাজটি চালিয়ে যাবো। এটি নিয়ে অস্ট্রেলিয়া সরকার উপযুক্ত সময়ে সিদ্বান্ত নিবে।’ সূত্র : বাসস