সর্বশেষ সংবাদ: জাতীয় শিক্ষাক্রম অনুসরণ করছে ইবতেদায়ী মাদ্রাসা: শিক্ষামন্ত্রী রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে কিশোর গ্যাং সদস্যরা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ কানাডা-আমিরাতে ঢুকতে না পেরে ফিরে আসছেন ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে ——- তারা‌বো পৌরসভার মেয়র হা‌সিনা গাজী সোনারগাওঁয়ের সাদিপুর ইউ,পিতে ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ০৪ পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু

সকল শিরোনাম

রাজনৈতিক সংঘাত বনাম জনসমাগমের রাজনীতি!! ব্রাজিল খেলায় সুনামি বইয়ে দিল : প্রতিপক্ষের বুকে কাঁপুনি শুরু বঙ্গবন্ধু টানেলের আংশিক খুলে দেওয়া হবে এ মাসেই ডিসেম্বরে ভারতের বিদ্যুৎ মিলবে বাংলাদেশে ১১ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা জাকারবার্গের মিয়ানমারে উপর নিষেধাজ্ঞা যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হোন শর্ত ছাড়াই বাংলাদেশকে ৪৫০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে আইএমএফ সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত কাতার বিশ্বকাপ : কন্টেইনারে রাতযাপনে গুনতে হবে ২১ হাজার টাকা ঋণের টাকায় দামি গাড়ি! পৃথিবীর তাপ রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে ১৫ নভেম্বর বিশ্বের জনসংখ্যা হবে ৮০০ কোটি আর্জেন্টিনা উগ্র ফুটবল সমর্থকগোষ্ঠী : বিশ্বকাপে ৬ হাজার আর্জেন্টাইন সমর্থক নিষিদ্ধ ২৫ কেজি সোনা নিলামে তুলবে বাংলাদেশ ব্যাংক খেলা যেন হয় শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ ডিএসইর মানবসম্পদ নীতি নিয়ে বৈঠক ডেকেছে বিএসইসি ঋণ পাচ্ছে বাংলাদেশ যুদ্ধ হয়ে যাক একটা.. দীর্ঘদিন পর রাজনৈতিক সমাবেশে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টাকা যেন একবারেই মূল্যহীন : ৫০ বছরে পণ্যমূল্য বেড়েছে ৮০ গুণ যৌন হয়রানি প্রতিকার কোথায়? সরকারের দমনপীড়নে গণজাগরণ দমানো যাবে না সংঘাত, সহিংসতা এবং সঙ্কটের রাজনীতি পাকিস্তানে বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক নেই হেফাজতের

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

১১ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা জাকারবার্গের মিয়ানমারে উপর নিষেধাজ্ঞা সিনেটে বাইডেন এগিয়ে, ট্রাম্পের নিয়ন্ত্রণে হাউস পদত্যাগ করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ট্রাস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ছে ‘সুপারবাগ’ সংক্রমণ কংগ্রেসের নতুন সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে আগরতলাস্থিত বাংলাদেশ হাই-কমিশন-র আয়োজনে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালন চলমান বিক্ষোভে ইরানের ভবিষ্যৎ বার্তা ইউক্রেনে ফের দফায় দফায় রুশ হামলা “আন্তর্জাতিক সাহিত্য ঘরানা”- র বিজয়া সম্মেলন অনুষ্ঠিত ইউক্রেনকে ৪০ কোটি ডলার সহায়তা দিবে সৌদি আরব ইউরোপে তিন মাসে পাঁচশ কোটি ডলারের পোশাক রফতানি আপাতত ইউক্রেনে বড় হামলা খেবে বিরত থাকবে পুতিন ইউক্রেনকে আকাশ প্রতিরক্ষা ন্যাটোর যুক্তরাষ্ট্রের ডেনিম রপ্তানিতে আয় ৬৩৯ মিলিয়ন ডলার

সিনেটে বাইডেন এগিয়ে, ট্রাম্পের নিয়ন্ত্রণে হাউস

| ২৫ কার্তিক ১৪২৯ | Wednesday, November 9, 2022

সিনেটে বাইডেন এগিয়ে, ট্রাম্পের নিয়ন্ত্রণে হাউস

 

 

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে বড় ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে বিরোধী রিপাবলিকান পার্টি। বিপরীতে উচ্চকক্ষ সিনেটের দখল নিয়ে চলছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দু’বছরের মাথায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদ ও সিনেটে অনুষ্ঠিত হয়েছে মধ্যবর্তী নির্বাচন।  এর মধ্যে কয়েকটি আসনের ফলও চলে এসেছে।  আর এতে দেখা যাচ্ছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের রিপাবলিকান দলের প্রার্থীরা দেশটির প্রতিনিধি পরিষদ বা হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারে। সর্বশেষ যে ফলাফলের পূর্বাভাস পাওয়া যাচ্ছে তাতে প্রতিনিধি পরিষদে ১৯৯টি আসন নিয়ে এগিয়ে আছে রিপাবলিকান পার্টি। ডেমোক্র্যাটরা পেয়েছে ১৭৩টি। নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে প্রয়োজন হবে ২১৮টি আসন।

অন্যদিকে উচ্চকক্ষ সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে ১০০ আসনের মধ্যে কমপক্ষে ৫১ আসনে জয় পেতে হবে। বিবিসির দেওয়া তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিট পর্যন্ত ডেমোক্র্যাটরা সিনেটের ৪৮ আসন এবং রিপাবলিকানরা ৪৭ আসন পেয়েছে।চূড়ান্ত সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে যে চারটি অঙ্গরাজ্যের দিকে সবার চোখ, সেগুলো হচ্ছে জর্জিয়া, পেনাসিলভানিয়া, অ্যারিজোনা এবং নেভাডা। এর মধ্যে অ্যারিজোনা, জর্জিয়া এবং নেভাডায় সিনেট আসনে এগিয়ে রয়েছে ডেমোক্র্যাটিক পার্টি।যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক প্রথানুযায়ী, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দুই বছর পর অনুষ্ঠিত হয় কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভস (প্রতিনিধি পরিষদ) ও উচ্চকক্ষ সিনেটের একাংশ আসনের নির্বাচন। সেই প্রথা অনুযায়ী মঙ্গলবার প্রতিনিধি পরিষদের ৪৩৫ আসন ও সিনেটের ৩৫ আসনে ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনের মাধ্যমেই নির্ধারিত হবে আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন পর্যন্ত ডেমোক্র্যাটস না রিপাবলিকানদের হাতে যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট কংগ্রেসের নিয়ন্ত্রণ থাকবে।গণনার প্রবণতা বলছে, কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাতছাড়া হতে চলেছে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির। বিদায়ী হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে ছিলেন ২২০ জন ডেমোক্র্যাট সদস্য, ২১২ জন রিপাবলিকান। এ বার সে সমীকরণ উল্টেও যেতে পারে।প্রতিনিধি পরিষদে নিয়ন্ত্রণ হারানোর অর্থ মেয়াদের বাকি সময়টাতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে তার সিদ্ধান্তগুলো বাস্তবায়ন করতে বিস্তর বেগ পেতে হবে।