সর্বশেষ সংবাদ: জাতীয় শিক্ষাক্রম অনুসরণ করছে ইবতেদায়ী মাদ্রাসা: শিক্ষামন্ত্রী রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে কিশোর গ্যাং সদস্যরা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ কানাডা-আমিরাতে ঢুকতে না পেরে ফিরে আসছেন ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে ——- তারা‌বো পৌরসভার মেয়র হা‌সিনা গাজী সোনারগাওঁয়ের সাদিপুর ইউ,পিতে ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ০৪ পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু

সকল শিরোনাম

রাজনৈতিক সংঘাত বনাম জনসমাগমের রাজনীতি!! ব্রাজিল খেলায় সুনামি বইয়ে দিল : প্রতিপক্ষের বুকে কাঁপুনি শুরু বঙ্গবন্ধু টানেলের আংশিক খুলে দেওয়া হবে এ মাসেই ডিসেম্বরে ভারতের বিদ্যুৎ মিলবে বাংলাদেশে ১১ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা জাকারবার্গের মিয়ানমারে উপর নিষেধাজ্ঞা যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হোন শর্ত ছাড়াই বাংলাদেশকে ৪৫০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে আইএমএফ সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত কাতার বিশ্বকাপ : কন্টেইনারে রাতযাপনে গুনতে হবে ২১ হাজার টাকা ঋণের টাকায় দামি গাড়ি! পৃথিবীর তাপ রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে ১৫ নভেম্বর বিশ্বের জনসংখ্যা হবে ৮০০ কোটি আর্জেন্টিনা উগ্র ফুটবল সমর্থকগোষ্ঠী : বিশ্বকাপে ৬ হাজার আর্জেন্টাইন সমর্থক নিষিদ্ধ ২৫ কেজি সোনা নিলামে তুলবে বাংলাদেশ ব্যাংক খেলা যেন হয় শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ ডিএসইর মানবসম্পদ নীতি নিয়ে বৈঠক ডেকেছে বিএসইসি ঋণ পাচ্ছে বাংলাদেশ যুদ্ধ হয়ে যাক একটা.. দীর্ঘদিন পর রাজনৈতিক সমাবেশে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টাকা যেন একবারেই মূল্যহীন : ৫০ বছরে পণ্যমূল্য বেড়েছে ৮০ গুণ যৌন হয়রানি প্রতিকার কোথায়? সরকারের দমনপীড়নে গণজাগরণ দমানো যাবে না সংঘাত, সহিংসতা এবং সঙ্কটের রাজনীতি পাকিস্তানে বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক নেই হেফাজতের

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

খেলা যেন হয় শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ যৌন হয়রানি প্রতিকার কোথায়? কাদা ছোড়াছুড়ি বন্ধ হোক বাংলাদেশের আমলাতন্ত্র পুরোপুরি দুর্নীতিগ্রস্ত চলমান বিক্ষোভে ইরানের ভবিষ্যৎ বার্তা যুদ্ধ বন্ধ না হলে মন্দাও বন্ধ হবে না দুরন্ত নির্ভীক বিদ্যুত খাত বৈশ্বিক সঙ্কট বর্তমান বাস্তবতা হত্যা-হামলা-রক্তাক্ত কেন ঘটবে? দুর্নীতি ও অনিয়ম বন্ধ করতে হবে টেকসই ইলেকট্রনিকস শিল্পে পরিবেশ প্রকৌশল মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের রাজনীতি বনাম বিরোধী রাজনীতি ‘‘মাদক ও মাদকাসক্তি নিয়ন্ত্রনে সর্বাত্তক প্রয়াস প্রয়োজন’’ বাংলাদেশে ভেজালমুক্ত খাবার প্রাপ্তি কঠিন কেন? করোনা : হাসপাতালে যেমন আছি

বাংলাদেশের আমলাতন্ত্র পুরোপুরি দুর্নীতিগ্রস্ত

| ৫ কার্তিক ১৪২৯ | Thursday, October 20, 2022

দুর্নীতিবাজ আমলা এবং এমপি-মন্ত্রী আর নয়

আবীর আহাদ : বাংলাদেশের আমলাতন্ত্র পুরোপুরি দুর্নীতিগ্রস্ত। এরা প্রাতিষ্ঠানিকভাবেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী। গণবিরোধীও বটে। এরা প্রজাতন্ত্রের চাকর হলেও, এরা নিজেদেরকে দেশের প্রভু ভাবে। ভাবখানা দেখায় যে, তারা সবজান্তা। অথচ এদের অনেকেই বাংলা ভাষায় একটা বাক্যও সঠিকভাবে লিখতে পারে না! এদেরকে মেধাবী ভাবা হলেও এরা আসলে দুর্নীতির জন্য  মেধাবী। যোগ্যতা ও দক্ষতা বলতে এদের তেমন কিছু নেই। তবে এরা খেক শেয়ালের মতো ধূর্ত। আবার চরম ভীরু! সুবিধাবাদী ও পদলেহী। নপুংসক। দুর্নীতিবাজ লুটেরা ও দুর্বৃত্তপরায়ণ রাজনীতিকরাই নিজেদের দুর্বলতার নিরিখে এই আমলাতন্ত্রকে অত্যন্ত মেধাবী ও শক্তিশালী মনে করে সমীহ করে থাকে।

লুটেরা-দুর্বৃত্তপরায়ণ রাজনীতিকরা যখন মন্ত্রী-এমপি হয়ে গদিতে বসে চুরিচামারির ধান্দা খোঁজে, সেই স্তরে এ আমলাতন্ত্র তাদের পাশে এসে পদলেহনের মধ্য দিয়ে মন্ত্রী-এমপিদের সুনজরে পড়ে যায়। শুরু হয় একে অপরকে সহযোগিতা প্রদানের নামে লুটপাটের ভাগাভাগির খেলা। একে-অপরের পারস্পরিক স্বার্থে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের অধীনস্থ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প ও কেনাকাটার ভেতরে আকাশছোঁয়া অস্বাভাবিক বর্ধিত মূল্য দেখিয়ে তারা শত শত হাজার হাজার কোটি টাকা লুটপাট করে থাকে। এরাই মিলেমিশে বিভিন্ন প্রকল্প ও কেনাকাটার উদ্ভাবন ও বাস্তবায়ন ঘটান, যার ফলে কাউকে কারো কাছে জবাবদিহি করতে হয় না। বিদেশের বিভিন্ন ব্যাঙ্কে যারা এদেশ থেকে অর্থ পাচার করে, তাদের সিংহভাগই হলো আমলা বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়।

মূলত: দুর্নীতিবাজ লুটেরা রাজনৈতিক সরকারের দুর্বলতার সুযোগে আমলাতন্ত্র তাদের ওপর জেকে বসে। এদের আরেকটি আদর্শগত দিক হচ্ছে তারা ব্যক্তিস্বার্থ প্রেমিক, কিন্তু দেশপ্রেমিক নয়। এজন্যই দুর্নীতিবাজ আমলাতন্ত্র ও লুটেরা রাজনীতিকরা একে অপরের স্বার্থের পরিপূরক শক্তি।

এই দুর্নীতিবাজ ও লুটেরা আমলা-রাজনৈতিক শক্তি লাঠিকে ভীষণ ভয় করে। বঙ্গবন্ধু ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আদর্শ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও অঙ্গীকার বাস্তবায়ন এবং কাঙ্ক্ষিত সুখীসমৃদ্ধশীল গণমানুষের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত করতে হলে সর্বাগ্রে এই দুর্নীতিবাজ ও লুটেরা আমলাতন্ত্র ও দুর্বৃত্তপরায়ণ রাজনৈতিক শক্তিকে জবরদস্তিমূলক তাড়ানো ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। এসব দুর্নীতিবাজ আমলা ও রাজনীতিকদের সরিয়ে দিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাসমৃদ্ধ সৎ মেধাবী ও ত্যাগীদের প্রশাসনে ও রাজনীতিতে আনতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ চলবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়। মেঘে মেঘে অনেক বেলা হয়ে গেছে। আর দেরি করার সময় নেই। এক্ষণি দুর্নীতিবাজদের মূলোৎপাটনের উপযুক্ত সময়।

লেখক : চেয়ারম্যান, একাত্তরের মুক্তিযোদ্ধার সংসদ।