সর্বশেষ সংবাদ: জাতীয় শিক্ষাক্রম অনুসরণ করছে ইবতেদায়ী মাদ্রাসা: শিক্ষামন্ত্রী রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে কিশোর গ্যাং সদস্যরা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ কানাডা-আমিরাতে ঢুকতে না পেরে ফিরে আসছেন ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে ——- তারা‌বো পৌরসভার মেয়র হা‌সিনা গাজী সোনারগাওঁয়ের সাদিপুর ইউ,পিতে ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ০৪ পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু

সকল শিরোনাম

রাজনৈতিক সংঘাত বনাম জনসমাগমের রাজনীতি!! ব্রাজিল খেলায় সুনামি বইয়ে দিল : প্রতিপক্ষের বুকে কাঁপুনি শুরু বঙ্গবন্ধু টানেলের আংশিক খুলে দেওয়া হবে এ মাসেই ডিসেম্বরে ভারতের বিদ্যুৎ মিলবে বাংলাদেশে ১১ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা জাকারবার্গের মিয়ানমারে উপর নিষেধাজ্ঞা যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হোন শর্ত ছাড়াই বাংলাদেশকে ৪৫০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে আইএমএফ সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত কাতার বিশ্বকাপ : কন্টেইনারে রাতযাপনে গুনতে হবে ২১ হাজার টাকা ঋণের টাকায় দামি গাড়ি! পৃথিবীর তাপ রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে ১৫ নভেম্বর বিশ্বের জনসংখ্যা হবে ৮০০ কোটি আর্জেন্টিনা উগ্র ফুটবল সমর্থকগোষ্ঠী : বিশ্বকাপে ৬ হাজার আর্জেন্টাইন সমর্থক নিষিদ্ধ ২৫ কেজি সোনা নিলামে তুলবে বাংলাদেশ ব্যাংক খেলা যেন হয় শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ ডিএসইর মানবসম্পদ নীতি নিয়ে বৈঠক ডেকেছে বিএসইসি ঋণ পাচ্ছে বাংলাদেশ যুদ্ধ হয়ে যাক একটা.. দীর্ঘদিন পর রাজনৈতিক সমাবেশে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টাকা যেন একবারেই মূল্যহীন : ৫০ বছরে পণ্যমূল্য বেড়েছে ৮০ গুণ যৌন হয়রানি প্রতিকার কোথায়? সরকারের দমনপীড়নে গণজাগরণ দমানো যাবে না সংঘাত, সহিংসতা এবং সঙ্কটের রাজনীতি পাকিস্তানে বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক নেই হেফাজতের

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

১১ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা জাকারবার্গের মিয়ানমারে উপর নিষেধাজ্ঞা সিনেটে বাইডেন এগিয়ে, ট্রাম্পের নিয়ন্ত্রণে হাউস পদত্যাগ করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ট্রাস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ছে ‘সুপারবাগ’ সংক্রমণ কংগ্রেসের নতুন সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে আগরতলাস্থিত বাংলাদেশ হাই-কমিশন-র আয়োজনে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালন চলমান বিক্ষোভে ইরানের ভবিষ্যৎ বার্তা ইউক্রেনে ফের দফায় দফায় রুশ হামলা “আন্তর্জাতিক সাহিত্য ঘরানা”- র বিজয়া সম্মেলন অনুষ্ঠিত ইউক্রেনকে ৪০ কোটি ডলার সহায়তা দিবে সৌদি আরব ইউরোপে তিন মাসে পাঁচশ কোটি ডলারের পোশাক রফতানি আপাতত ইউক্রেনে বড় হামলা খেবে বিরত থাকবে পুতিন ইউক্রেনকে আকাশ প্রতিরক্ষা ন্যাটোর যুক্তরাষ্ট্রের ডেনিম রপ্তানিতে আয় ৬৩৯ মিলিয়ন ডলার

যুক্তরাষ্ট্রের ডেনিম রপ্তানিতে আয় ৬৩৯ মিলিয়ন ডলার

| ২৯ আশ্বিন ১৪২৯ | Friday, October 14, 2022

অর্থনীতি ডেস্ক : শক্তিশালী ব্যাকওয়ার্ড লিংকেজের কারণে স্বল্পসময়ে উৎপাদন এবং কম দামে পোশাক কিনে মুনাফা তৈরির সুযোগ থাকায় বাংলাদেশ ডেনিম পোশাকের আকর্ষণীয় উৎসে পরিণত হয়েছে। মুদ্রাস্ফীতির কারণে ভোক্তাদের চাহিদা কমে যাওয়ায় যুক্তরাষ্ট্র তৈরি পোশাক আমদানি কমালেও দেশটিতে ডেনিম রপ্তানিতে বাংলাদেশ এখনও নিজের অবস্থান ধরে রেখেছে।
চলতি বছরের প্রথম আট মাসে (জানুয়ারি-আগস্ট) বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রে ৬৩৯ মিলিয়ন ডলার মূল্যের ডেনিম পণ্য রপ্তানি করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অব কমার্সের টেক্সটাইল অ্যান্ড অ্যাপারেল অফিস (ওটেক্সা) অনুসারে আগের বছরের তুলনায় চলতি বছরের প্রবৃদ্ধি ৪৬.৩৭ শতাংশ বেড়েছে।
খাত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, শক্তিশালী ব্যাকওয়ার্ড লিংকেজের কারণে স্বল্পসময়ে উৎপাদন এবং কম দামে পোশাক কিনে মুনাফা তৈরির সুযোগ থাকায় বাংলাদেশ ডেনিম পোশাকের আকর্ষণীয় উৎসে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশ গার্মেন্টস ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএমইএ) ভাইস-প্রেসিডেন্ট শহীদুল্লাহ আজিম বলেন, মার্কিন ক্রেতারা এখনও বাংলাদেশে আসছে কারণ এখানে তারা কম দামে ডেনিম গার্মেন্টস কিনতে পারে। এ কারণেই বাংলাদেশ পোশাক রপ্তানি খাতে আধিপত্য ধরে রাখতে পারছে।
স্থানীয় ব্যাকওয়ার্ড লিংকেজ বা কাঁচামাল সরবরাহমারী প্রতিষ্ঠানগুলো সময়মতো কাপড় সরবরাহ করায় বাংলাদেশে ডেনিমের তৈরি পোশাক প্রস্তুত করতেও সময় কম লাগে। ওটেক্সার তথ্য অনুযায়ী, বছরের প্রথম আট মাসে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জিন্সের মোট আমদানি ৩১ দশমিক ২৯ শতাংশ বেড়ে ২.৮৫ বিলিয়ন ডলার হয়েছে। সোর্সিং জার্নালের প্রতিবেদন অনুসারে, পোশাক বিক্রি ৬ দশমিক ৭ শতাংশ থেকে ৭ শতাংশ বা ৬.১৫ বিলিয়ন থেকে ৬.১৭ বিলিয়ন পর্যন্ত বাড়বে বলে ধারণা করছে যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত্তম ক্রেতাদের মধ্যে অন্যতম লেভি’স। এর আগে বিক্রি ৬.৪ বিলিয়ন থেকে ৬.৫ বিলিয়ন পর্যন্ত বাড়ার পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল। তবে ইউরোপে ডেনিম রপ্তানির বাজারের অবস্থা এখনও খুব একটা ভালো হয়। চলমান রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতির মধ্যে আমাদের প্রধান রপ্তানি বাজারগুলোতে ভোক্তাদের পোশাক চাহিদা কমছে, বলেন শহীদুল্লাহ আজিম।
এনভয় টেক্সটাইলের প্রতিষ্ঠাতা প্রকৌশলী কুতুবউদ্দিন আহমেদ বলেন, ইউরোপীয় গ্রাহকদের চাহিদা কমে যাওয়ায় স্থানীয় ডেনিম প্রস্তুতকারকদের উৎপাদন অর্ধেক কমে গেছে। তিনি আরও বলেন, এ ধরনের অর্থনৈতিক সংকটের সময় মানুষ খাবার, ওষুধ ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের পরিবর্তে পোশাক কিনতে আগ্রহী থাকে না। ডেনিম এক্সপার্ট লিমিটেডের অতিরিক্ত ম্যানেজিং ডিরেক্টর মহিউদ্দিন রুবেল বলেন, যুদ্ধের কারণে ইউরোপের ডেনিম বাজার ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অনেক ক্রেতা শিপমেন্ট পেছানোর অনুরোধ করছেন। আবার নতুন অর্ডারগুলোও দেরীতে আসছে বলে জানান তিনি। বিজিএমইএ পরিচালক মহিউদ্দিন রুবেল আরও বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাজারে বাংলাদেশের ডেনিম রপ্তানি কমেছে। অনেক ক্রেতা তাদের পেমেন্ট দেরিতে পরিশোধ করছেন ফলে রপ্তানিকারকদের ওপরেও অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি হচ্ছে। সূত্র : টিবিএস