সকল শিরোনাম

সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ০৪ পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ঢাকায় বিয়ে উৎসব, অংশ নেবেন কারা? ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু গোটা বিশ্বই ধ্বংস হবে মশা মারার ওষুধ কতটা কার্যকর? সশস্ত্র বিক্ষোভের শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে সতর্কতা বিটিএমসিতে অনিয়ম ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে দল ঘোষণা আমাকে বিয়ে করবে? শ্রীলেখা ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদ ২০ শতাংশ নির্ধারণ ১১৬৮ নমুনায় ৮৮ আক্রান্ত করোনা কেড়ে নিল আরও ২১ প্রাণ বার্সেলোনার সভাপতি নির্বাচন স্থগিত ভোটে সক্রিয় ছিল না বিএনপি টাকা যাঁর, টিকা তাঁর এমন যেন না হয়… ওবায়দুল কাদেরের ভাই কাদের মির্জা জয়ী মানুষের দারিদ্র্যের অন্যতম কারণ উপার্জনে সুযোগের সীমাবদ্ধতা আমদানি বৃদ্ধিতে অর্থনীতিতে স্বস্তির ইঙ্গিত তৈরি পোশাকের ক্রেতাদের এগিয়ে আসার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর স্বামীর প্ররোচনায় স্ত্রীর আত্মহত্যা করোনা ভ্যাকসিন জানুয়ারিতেই পাব ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী হোটেলে আটকে রেখে তরুণীকে ২ বন্ধুর পালাক্রমে ধর্ষণ

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

আমদানি বৃদ্ধিতে অর্থনীতিতে স্বস্তির ইঙ্গিত তৈরি পোশাকের ক্রেতাদের এগিয়ে আসার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর করোনায় ক্ষুদ্রঋণ : ৩ হাজার কোটির মধ্যে আড়াই মাসে মাত্র ২০ কোটি টাকা বিতরণ জুন থেকেই শ্রমিক ছাঁটাই হতে পারে: রুবানা হক ঘুরে দাঁড়াচ্ছে মোংলা বন্দর করোনায় ৪০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বেকারত্ব চীনে ঈদে খুলছে না ‘বসুন্ধরা সিটি’ ও ‘যমুনা ফিইচার পার্ক’ করোনার প্রভাবে অর্থনীতি নিম্নআয়ের মানুষকে জামানত ছাড়াই ঋণ দেবে সরকার সকল আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ব্যয় কমানোর নির্দেশ ঈদের আগেই আর্থিক সহায়তা পাবেন কর্মহীন মানুষ: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ওয়ারেন বাফেট হারালেন ৫ হাজার কোটি ডলার! লোভের বলি দেশটা… পোশাকশ্রমিকদের এখন ঢাকায় আসার প্রয়োজন নেই : রুবানা হক পুঁজিবাদী ব্যবস্থার অসহায়ত্ব প্রকট হয়েছে

ঘুরে দাঁড়াচ্ছে মোংলা বন্দর

| ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | Friday, May 15, 2020

মোংলা প্রতিনিধি : করোনাভাইরাসের সংকট কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে মোংলা বন্দর। প্রথম দিকে জাহাজ আগমন ও পণ্য লোডিং-আনলোডিং কাজ কিছুটা কমে গেলেও এখন সব ধকল সামলে নিয়েছে বন্দরটি। তাই বেড়েছে কর্মচাঞ্চল্য। কর্তৃপক্ষ মনে করছেন, এবার বন্দরে তাদের আয় সাড়ে ৩০০ কোটি টাকার কাছাকাছি পৌঁছাবে।

একাধিক সূত্র জানায়, করোনার প্রভাব মোকাবিলায় গত ২৬ মার্চ থেকে সরকারিভাবে দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা ও ব্যবসা-বাণিজ্যের পরিধি সীমিত করায় নানা শংকার মধ্যে পড়েন মোংলা বন্দর ব্যবহারকারীরা। দেশে করোনার প্রার্দুভাবের প্রথম দিকে এ বন্দরে জাহাজ আগমন ও পণ্য খালাস-বোঝাই কাজে কিছুটা প্রভাব পড়লেও ধীরে ধীরে তা কেটে গিয়ে বন্দর বর্তমানে কর্মচঞ্চল হয়ে পড়েছে। বন্দরে এখন গড়ে প্রতিদিন ১০/১১টি জাহাজের অবস্থান থাকছে।

বন্দরের ট্রাফিক বিভাগ সূত্র জানায়, চলতি বছরের জানুয়ারিতে ১০০টি জাহাজ ভেড়ে বন্দরে এবং ১২ লাখ ৯৬ হাজার মেট্রিক

টন আমদানি ও ১৪ হাজার ২৩৬ টন পণ্য এ বন্দর থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রফতানি হয়েছে। ফেব্রুয়ারি মাসে ৭০টি জাহাজ আসে বন্দরে এবং ৯ লাখ ৫১ হাজার ৫০০ মেট্রিক টন পণ্য আমদানি ও রফতানি হয় ১১ হাজার ৫৩৯ মেট্রিক টন পণ্য। মার্চ মাসে ৭৩টি পণ্যবাহী বাণিজ্যিক জাহাজ ভেড়ে এবং ১০ লাখ ৮৪ হাজার ৬৪৪ মেট্রিক টন পণ্য আমদানি ও ৭ হাজার ৬২১ মেট্রিক টন পণ্য বিদেশে রফতানি হয়েছে। এপ্রিল মাসেও ৭১টি দেশি-বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজের আগমন ও নির্গমনসহ ৮ লাখ ৬৯ হাজার মেট্রিক টন সার, গম, কয়লা, কিংকার, সিরামিকসহ কনটেইনারজাত নানা পণ্য আমাদানি হয় এ বন্দরে। একই সঙ্গে হিমায়িত চিংড়ি ও পাটজাতসহ বিভিন্ন পণ্য বিশ্ব বাজারে রফতানি হয়েছে ৭১৯ মেট্রিক টন। এছাড়া চলতি অর্থ বছরের এপ্রিল পর্যন্ত বন্দরে রিকন্ডিশন গাড়ি আমদানি হয়েছে ১১ হাজার ৭৪৭টি। কিন্তু আমদানির ক্ষেত্রে কিছুটা হরাস পেয়েছে কনটেইনারজাত পণ্য, রিকন্ডিশন গাড়ি ও মেশিনারিজসহ অন্যান্য পণ্য সামগ্রী।

সূত্র আরও জানায়, সব মিলিয়ে চলতি অর্থ বছরের (২০১৯-২০২০) এখন পর্যন্ত মোংলা বন্দরে ৯৯ লাখ ৬১ হাজার মেট্রিক টন পণ্য আমদানি ও রফতানি হয়েছে। এ পর্যন্ত বন্দরের আয় হয়েছে ২৮৩ কোটি টাকা। ২০১৮-২০০৯ অর্থবছর আমদানি-রফতানির পরিমাণ ছিল ১ কোটি ১৩ লাখ মেট্রিক টন পণ্য। রিকন্ডিশন গাড়ি আমদানি হয়েছিল ১২ হাজার ৬৯৫টি।

মোংলা বন্দর ব্যবহারকারী ও মেসার্স নুরু এন্ড সন্সের মালিক এইচ এম দুলাল জানান, কর্তৃপক্ষ সঠিকভাবে বন্দর পরিচালনা করার জন্য বন্দরে বিরূপ প্রভাব পড়েনি। বন্দর ব্যবহারে তিনি সন্তুষ্ট। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের পরিচালক (ট্রাফিক) মো. মোস্তফা কামাল বলেন, বর্তমানে বন্দর জেটিতে আমদানি ও রফতানি পণ্যসহ ৩ হাজার ৯০ একক কনটেইনার রয়েছে। তবে রিকন্ডিশন গাড়ির ধারণক্ষমতা কাছাকাছি হওয়ায় দ্রুত গাড়ি ছাড়িয়ে নিতে বলা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, গত অর্থবছরে এ বন্দরের আয় হয়েছিল ৩২৯ কোটি টাকা। তবে করোনা সংকটের পরও চলতি অর্থবছরও আয় এর কাছাকাছি পৌঁছাবে বলে আশাবাদি তিনি।

মোংলা বন্দর ব্যবহারকারী ও কনটেইনারের মাধ্যমে পণ্য আমদানিকারক মো. কবির জানান, করোনা পরিস্থিতিতে বিদেশ থেকে কনটেইনারে পণ্য আমদানিতে কিছু সংকট মোকাবিলা করতে হচ্ছে তাদের। তবে সংকটের মধ্যেও তারা পণ্যবাহী কনটেইনার আমদানি অব্যাহত রেখেছেন। করোনার প্রভাব আরও দীর্ঘায়িত হলে তাদের ক্ষতির পরিমান ৩ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যেতে পারে। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম শাহজাহান বলেন, মোংলা বন্দরে ৭ দিন কোনো রেন্ট নেই, চট্টগ্রাম বন্দরের ক্ষেত্রে যা মাত্র ৪ দিন। অপরদিকে ২০ ফিট ও ৪০ ফিট কনটেইনার মংলা বন্দরে প্রতিদিন রেন্ট ৩ ও ৬ ডলার কিন্তু চট্টগ্রাম বন্দরে প্রতিদিন রেন্ট ৬ ও ১২ ডলার। এ বন্দরে জাহাজ ও কনটেইনার জট কোনটাই নেই। ধারণক্ষমতার ৪০ ভাগ জায়গা ফাঁকা রয়েছে। তাই বন্দর কর্তৃপক্ষ কনটেইনারের ভাড়া মওকুফের বিষয়টি ভাবছে না।