সর্বশেষ সংবাদ: জাতীয় শিক্ষাক্রম অনুসরণ করছে ইবতেদায়ী মাদ্রাসা: শিক্ষামন্ত্রী রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে কিশোর গ্যাং সদস্যরা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ কানাডা-আমিরাতে ঢুকতে না পেরে ফিরে আসছেন ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে ——- তারা‌বো পৌরসভার মেয়র হা‌সিনা গাজী সোনারগাওঁয়ের সাদিপুর ইউ,পিতে ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ০৪ পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু

সকল শিরোনাম

ব্রাজিল খেলায় সুনামি বইয়ে দিল : প্রতিপক্ষের বুকে কাঁপুনি শুরু বঙ্গবন্ধু টানেলের আংশিক খুলে দেওয়া হবে এ মাসেই ডিসেম্বরে ভারতের বিদ্যুৎ মিলবে বাংলাদেশে ১১ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা জাকারবার্গের মিয়ানমারে উপর নিষেধাজ্ঞা যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হোন শর্ত ছাড়াই বাংলাদেশকে ৪৫০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে আইএমএফ সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত কাতার বিশ্বকাপ : কন্টেইনারে রাতযাপনে গুনতে হবে ২১ হাজার টাকা ঋণের টাকায় দামি গাড়ি! পৃথিবীর তাপ রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে ১৫ নভেম্বর বিশ্বের জনসংখ্যা হবে ৮০০ কোটি আর্জেন্টিনা উগ্র ফুটবল সমর্থকগোষ্ঠী : বিশ্বকাপে ৬ হাজার আর্জেন্টাইন সমর্থক নিষিদ্ধ ২৫ কেজি সোনা নিলামে তুলবে বাংলাদেশ ব্যাংক খেলা যেন হয় শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ ডিএসইর মানবসম্পদ নীতি নিয়ে বৈঠক ডেকেছে বিএসইসি ঋণ পাচ্ছে বাংলাদেশ যুদ্ধ হয়ে যাক একটা.. দীর্ঘদিন পর রাজনৈতিক সমাবেশে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টাকা যেন একবারেই মূল্যহীন : ৫০ বছরে পণ্যমূল্য বেড়েছে ৮০ গুণ যৌন হয়রানি প্রতিকার কোথায়? সরকারের দমনপীড়নে গণজাগরণ দমানো যাবে না সংঘাত, সহিংসতা এবং সঙ্কটের রাজনীতি পাকিস্তানে বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক নেই হেফাজতের ঘটনাবহুল ৭ নভেম্বর আজ

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ অন্তঃসত্ত্বা নারীর কি পাইলসের অস্ত্রোপচার করা যায়? সকালের ৫ অভ্যাস আপনাকে সুস্থ রাখবে ‘দাড়ি পুরুষকে সুদর্শন ও ক্যান্সার থেকে রক্ষা পেতে সাহায্য করে’ মাথা ন্যাড়াকারীদের জন্য সুখবর! অন্তঃসত্ত্বা মা ও শিশুর স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতের আহ্বান ইউনিসেফের ব্যাকটেরিয়াল মহামারী পেট ব্যথা-ডায়রিয়াও হতে পারে করোনার উপসর্গ করোনা চিকিৎসায় ‘রেমডেসিভির’ ব্যবহারের অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্রের করোনায় বন্দী জীবন : ওজন কমাবেন যেভাবে করোনার ৮০ শতাংশের ঘরেই চিকিৎসা সম্ভব যন্ত্রণাদায়ক ইনজেকশন ছাড়াই নিয়ন্ত্রণে থাকবে ডায়াবেটিস! হার্ট ভাল রাখে,ক্যান্সারের প্রবণতা কমায় অলিভ অয়েল মুখের দুর্গন্ধ দূর করুন খুব সহজে!

করোনার ৮০ শতাংশের ঘরেই চিকিৎসা সম্ভব

| ৮ বৈশাখ ১৪২৭ | Tuesday, April 21, 2020

 

আক্রান্তদের ৮০ শতাংশের ঘরেই চিকিৎসা সম্ভব

 

সারা বিশ্বে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে মরণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। সেই সঙ্গে বাংলাদেশেও তা বাড়ছে ব্যাপক হারে। এ অবস্থায় ঘরে থাকার কোনো বিকল্প নেই বলে জানালেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। তারা বলেন, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের ৮০ শতাংশ রোগীর ঘরেই চিকিৎসা সম্ভব। মাত্র ২০ শতাংশ হাসপাতালে নেওয়ার প্রয়োজন হয়। তাদের অক্সিজেন সাপোর্ট ও কিছু ওষুধ লাগতে পারে। সর্দি, কাশি ও জ্বর হলে শুধু প্যারাসিটামল ও অ্যান্টি হিস্টামিন জাতীয় ওষুধ সেবন করলে হবে। তবে শ্বাসকষ্ট ও গলায় ব্যথা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী অ্যান্টিবায়োটিক খেতে হবে।

 

এদিকে করোনার কারণে সংকুচিত হয়ে আসছে চিকিৎসা ব্যবস্থা। একের পর এক হাসপাতাল লকডাউন হচ্ছে। রাজধানীর মিটফোর্ড হাসপাতালে ২৩ জন চিকিৎসকসহ ৪৩ জন স্বাস্থ্যসেবা কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এই পরিপ্রেক্ষিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ হাসপাতাল লকডাউনের প্রস্তাব করেছে গতকাল (২০ এপ্রিল)। রোগীদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার তথ্য গোপন সর্বনাশ ডেকে আনছে। এর আগে চারটি হাসপাতালেও ডাক্তার-নার্স আক্রান্ত হওয়ার মূলে ছিল রোগীর তথ্য গোপন করা। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগে করোনা আক্রান্ত এক রোগী সিজারিয়ান অপারেশন করতে আসেন। তার মাধ্যমে কয়েক জন ডাক্তার-নার্স আক্রান্ত হন।

প্রসঙ্গত, করোনা প্রতিরোধের টিকা নেই, চিকিৎসায় নেই সুনির্দিষ্ট কোনো ওষুধ। অত্যন্ত ছোঁয়াচে রোগ এটি, মানুষ মারা যাচ্ছে বিশ্বব্যাপী ক্রমবর্ধমান হারে। পৃথিবী অচল হচ্ছে। অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড স্থবির হচ্ছে প্রতিদিন। চাহিদা ও সরবরাহ নিম্নমুখী হচ্ছে। বিশ্ব ধাবিত হচ্ছে বড়ো ধরনের অর্থনৈতিক মন্দার দিকে। প্রচুর মানুষ চাকরি হারাচ্ছে, কর্মসংস্থানের অন্যান্য ব্যবস্থা সংকুচিত হয়ে আসছে ক্রমান্বয়ে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মুখ্য চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ বি এম আব্দুল্লাহ বলেন, ঘরে থাকা ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। সবাই ঘরে থাকবেন, চিকিৎসার জন্য বাইরে যাওয়ার দরকার নেই। করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের ৮০ শতাংশই ঘরে বসে চিকিৎসাসেবা নিতে পারেন। যত বেশি ঘরে থাকবেন, তত বেশি নিজে, পরিবার ও দেশকে নিরাপদ রাখবেন। তিনি বলেন, শ্বাসকষ্ট ও গলায় ব্যথা না হলে হাসপাতালে আসার প্রয়োজন নেই।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. খান মো. আবুল কালাম আজাদ বলেন, করোনা যুদ্ধে জয়ী হতে হলে সবার ঘরে থাকতে হবে। ঘরে থেকে নিজে বাঁচুন, পরিবারকে বাঁচান, দেশকে বাঁচান।

বাংলাদেশে মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) মহাসচিব. ডা. এহতেশামুল হক চৌধুরী দুলাল বলেন, করোনার সুনির্দিষ্ট কোনো ওষুধ নেই। তবে উপসর্গ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করলে ৮০ ভাগ রোগী এমনিতেই সুস্থ হয়ে যান। বাংলাদেশ প্রাইভেট হসপিটাল, ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশেনের সভাপতি অধ্যাপক ডা. মনিরুজ্জামান ভূঁইয়া বলেন, তথ্য গোপন করলে অন্যের মৃত্যু ডেকে নিয়ে আসবে। তাই করোনা আক্রান্ত রোগীদের তথ্য গোপন করা উচিত নয়। তিনি বলেন, বেসরকারি হাসপাতালে কিট দিলে পরীক্ষা করে ব্যবস্থা নেওয়া যাবে। কারণ হার্টের রোগী, কিডনি রোগীরাও করোনায় আক্রান্ত। এটা পরীক্ষা না করলে বোঝার উপায় থাকে না। সরকারের একার পক্ষে করোনা মোকাবিলা করা সম্ভব না। সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি হাসপাতালের সাপোর্টও নেওয়া উচিত। তাই বেসরকারি হাসপাতালে কিট দিতে হবে। করোনার র‍্যাপিড পরীক্ষা করার পরামর্শ দেন তিনি। আবুল খায়ের