সর্বশেষ সংবাদ: রূপগঞ্জে পানি দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনাসভা ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে কিশোর গ্যাং সদস্যরা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ কানাডা-আমিরাতে ঢুকতে না পেরে ফিরে আসছেন ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে ——- তারা‌বো পৌরসভার মেয়র হা‌সিনা গাজী সোনারগাওঁয়ের সাদিপুর ইউ,পিতে ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ০৪ পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু

সকল শিরোনাম

রূপগঞ্জে পানি দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনাসভা ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত মাদক,সন্ত্রাস ও ইভটিজিং নির্মূলে খেলাধূলার ভূমিকা অপরিসীম- কাউন্সিলর…মাহমুদুল হাসান পলিন রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে কিশোর গ্যাং সদস্যরা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ কানাডা-আমিরাতে ঢুকতে না পেরে ফিরে আসছেন ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে ——- তারা‌বো পৌরসভার মেয়র হা‌সিনা গাজী সোনারগাওঁয়ের সাদিপুর ইউ,পিতে ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ০৪ পরিবহন চাঁদাবাজ গ্রেফতার রূপগঞ্জে পুলিশ পরিদর্শকসহ ব্যবসায়ীকে হানজালা বাহিনীর হুমকি, ইটপাটকেল নিক্ষেপে দুই পুলিশ সদস্য আহত রূপগঞ্জে মন্ত্রীর পক্ষে ছাত্রলীগ নেতারদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হলেন আহমদে জামাল ঢাকায় বিয়ে উৎসব, অংশ নেবেন কারা? ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু গোটা বিশ্বই ধ্বংস হবে মশা মারার ওষুধ কতটা কার্যকর? সশস্ত্র বিক্ষোভের শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে সতর্কতা বিটিএমসিতে অনিয়ম ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে দল ঘোষণা আমাকে বিয়ে করবে? শ্রীলেখা ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদ ২০ শতাংশ নির্ধারণ ১১৬৮ নমুনায় ৮৮ আক্রান্ত করোনা কেড়ে নিল আরও ২১ প্রাণ বার্সেলোনার সভাপতি নির্বাচন স্থগিত ভোটে সক্রিয় ছিল না বিএনপি টাকা যাঁর, টিকা তাঁর এমন যেন না হয়… ওবায়দুল কাদেরের ভাই কাদের মির্জা জয়ী

আদা আর দাদা

| ২৯ মাঘ ১৪২২ | Thursday, February 11, 2016

---আদা নাম শুনলেই ঝাঁঝালো গন্ধ নাকে আসে। এই ভারতীয় উপমহাদেশেই প্রথম দেখা মেলে আদার। খ্রিষ্টাব্দের প্রথম দিক থেকেই আদার ব্যবহার শুরু হয়। ভারতীয়দের মতোই প্রচুর পরিমানে আদা ব্যবহার করত রোমানরা। কিন্তু জানেন কী শুধু রান্নার স্বাদ ফেরাতেই নয়, ত্বক এবং চুলের বিভিন্ন সমস্যা মেটাতেও আদার জুড়ি মেলা ভার।

আসুন দেখে নিই কেমন ভাবে ঘরোয়া উপায় আদা ব্যবহার করেই মিলবে ত্বকের বিভিন্ন চটজলদি সমাধান।

 অ্যান্টি অক্সিডেন্টের কাজ করে আদা। ত্বকের বলিরেখা আটকাতে আদার জুড়ি মেলা ভার। ত্বক থেকে ক্ষতিকারক টক্সিন বের করে দিয়ে ত্বকে রক্ত চলাচল ঠিক রাখে। এই ভাবেই প্রতিহত করে ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া।

 ত্বকের গভীরে ঢুকে ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণ প্রতিহত করে বিভিন্ন দাগ তা সে ব্রণ-রই হোক বা মেচেতা পরিষ্কার করে আদা।

 আদায় আছে অ্যান্টিসেপটিক ক্ষমতা যা জ্বালা ভাব কমিয়ে দেয়। কোনও ভাবে পুড়ে গেলে পোড়া জায়গায় এক টুকরো আদার রস লাগিয়ে দিল জ্বালা ভাবের উপশম হয়।

• ত্বকের ঝকঝক ভাবে বাড়িয়ে তোলে আদা।

 ত্বকের টোনিংয়ের কাজ করে আদা। এক টুকরো আদা ত্বকের উপর এমনই বুলিয়ে নিন। কিছু ক্ষণ রাখার পর ধুয়ে ফেলুন। আপনার ত্বক ঝকঝকে এবং নরম হয়ে যাবে।

 ত্বকে সাদা দাগ দেখা দিচ্ছে? সাদা দাগের উফর বুলিয়ে নিন এক টুকরো আদা। এই ভাবেই আঘ ঘণ্টা মতো রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহ খানেক এমন ভাবে পরিচর্যা করলে আপনার ত্বক থেকে সমস্ত অবাঞ্ছিত দাগ উধাও হয়ে যাবে।

 চুল ঝরে পরা কমিয়ে দেয় আদার রস। খুশকির সমস্যাও মেটায় আদা। এ ছাড়া চুলের ডগা ফাটাও রোধ করে আদা। শ্যাম্পুর সঙ্গে অল্প পরিমানে আদার রস মিশিয়ে লাগালে চুলের শুষ্ক ভাব কমে গিয়ে নরম হয় চুল।