সকল শিরোনাম

এমপি হাবিবুর রহমান মোল্লার গণসংযোগ একনেকে ১৫টি প্রকল্পের অনুমোদন সিনহাকে আদালতের মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে: আইনমন্ত্রী ‘বর্তমান সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে এটা পাগলেও বিশ্বাস করে না’ রূপগঞ্জে দুই শতাধিক গ্রাজুয়েটকে প্রশিক্ষন ডেমরায় মাদক,সন্ত্রাস, জঙ্গি, ইভটিজিং ও নিরাপদ সড়ক বিষয়ক আলোচনাসভা ২৯ সেপ্টেম্বর কি হবে? সেবা খাতে ঘুষ-দুর্নীতি বন্ধ হবে কবে? কেন সাংবাদিক নির্যাতন? সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর সর্বোচ্চ সাজা ৫ বছরের জেল রূপগঞ্জে গাজা ও ইয়াবাসহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার আসামের তালিকা নিয়ে বাংলাদেশের দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই: ভারতীয় হাইকমিশনার প্রধানমন্ত্রী বললে পদত্যাগ করব : নৌমন্ত্রী শিশুরা আমাদের চোখ-কান খুলে দিয়েছে : মনিরুল শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নিলেন প্রধানমন্ত্রী তারকারা রাস্তায় পুলিশের নামে মামলা দিতে সার্জেটকে বাধ্য করলো শিক্ষার্থীরা আন্দোলনও থামুক; সড়কও নিরাপদ হউক দু:স্থদের মাঝে বিসিএস পুলিশ পরিবারের ঈদ বস্ত্র বিতরণ ৬ কারণে বিশ্বকাপ জিতবে ব্রাজিল সবার জন্য স্বাস্থ্য প্রধানমন্ত্রীর কানাডা সফর ৬ জুন  দ্রব্যমূল্য বাড়ার মাস কী রমজান! সবকিছু স্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে লিখিত স্থগিতাদেশ পেলে গাজীপুর সিটি নির্বাচনের জন্য আপিল করা হবে : অ্যাটর্নি জেনারেল


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

একনেকে ১৫টি প্রকল্পের অনুমোদন ২৯ সেপ্টেম্বর কি হবে? ঈদে বাসের অগ্রিম টিকিট কাল থেকে আসামের তালিকা নিয়ে বাংলাদেশের দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই: ভারতীয় হাইকমিশনার শিশুরা আমাদের চোখ-কান খুলে দিয়েছে : মনিরুল আন্দোলনও থামুক; সড়কও নিরাপদ হউক প্রধানমন্ত্রীর কানাডা সফর ৬ জুন হাসান ইন্তিসার এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে লিখিত স্থগিতাদেশ পেলে গাজীপুর সিটি নির্বাচনের জন্য আপিল করা হবে : অ্যাটর্নি জেনারেল সৌহার্দ্যপূর্ণ আন্তঃবাহিনী সম্পর্ক বজায় রাখার আহবান আইজিপির নির্বাচনী মাঠে একঝাঁক তরুণ মনোনয়নপ্রত্যাশী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়েও উদ্বেগজনক ৥ সড়ক দুর্ঘটনা : মায়া কান্নায় কি লাভ? এমপি হতে শেষ চেষ্টায় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা

আবারো বাড়ছে গ্যাসের দাম

জাতীয় সংবাদ, সকল শিরোনাম | ১৩ চৈত্র ১৪২৪ | Tuesday, March 27, 2018

নিউজ-বাংলাদেশ, ঢাকা: ফের ১ বছরের মাথায় বৃদ্ধি পেয়েছে গ্যাসের দাম। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে সর্বশেষ গ্যাসের দাম বৃদ্ধির পর এক বছরের মাথায় ফের নিত্যদিনের জ্বালানি পণ্যটির দাম বৃদ্ধি পেলো। শুধুমাত্র আবাসিক ছাড়া সব খাতে দাম বাড়ানোর প্রস্তাব এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে পাঠিয়েছে গ্যাস বিতরণ প্রতিষ্ঠানগুলো। যেখানে খাতভেদে ৪ গুণ পর্যন্ত দাম বাড়ানোর আবেদন করা হয়েছে।

জ্বালানি সংকট কাটাতে এপ্রিলে শুরু হচ্ছে দৈনিক ৫০ কোটি ঘনফুট তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস বা এলএনজি আমদানি। আর উচ্চমূল্যের এ জ্বালানি আমদানির ব্যয় সামলাতে শুরু হয়েছে আবারো গ্যাসের দাম বাড়ানোর আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া।

বিশেষজ্ঞরা জানান, অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে জ্বালানি অনুসন্ধানে জোর দিলে ব্যয়বহুল এলএনজি নির্ভরতা এড়ানো যেতো।

বর্তমানে দেশে উৎপাদিত বিদ্যুতের ৬২ শতাংশই গ্যাসভিত্তিক। তাই গ্যাসের দাম বাড়লে বাড়বে বিদ্যুতের উৎপাদন ব্যয়ও। আবার জ্বালানি খরচ বাড়ায় শিল্প বিনিয়োগেও নেতিবাচক প্রভাবের আশঙ্কা করছে বিশেষজ্ঞরা।

তারা বলছেন, আবারো গ্যাসের দাম বাড়ানোর উদ্যোগের জন্য সরকারের ভুল নীতিই দায়ী।

জ্বালানি বিশেষজ্ঞ ড. এম শামসুল আলম বলেন, সাগরের গ্যাস উত্তোলনে অগ্রগতি নেই। স্থলের কোন গ্যাস ফিল্ড এক্সটেনসিভ ওয়েতে অনুসন্ধানে গেলাম না আমরা। গ্যাসের এবং জ্বালানির সংকট তীব্র করে আমরা এলএনজির চাহিদা বাড়িয়ে আমরা দাম বৃদ্ধিকে অবশ্যম্ভাবী করলাম।

তবে জ্বালানি ব্যয় বাড়লেও উৎপাদন খাতে সার্বিকভাবে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না বলে মনে করছেন প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

তিনি বলেন, ইন্ডাস্ট্রির মাত্র নয় শতাংশ হলো জ্বালানি খরচ। এই নয় ভাগ যদি না দেয় তাহলে বাকি নব্বই ভাগও কিন্তু তার আসবে না। সেটা তো কেউ চিন্তা করে না। তারা চব্বিশ ঘন্টা গ্যাস পাবে, সেই কস্ট অব অপরচুনিটি তৈরি হবে, মার্কেট আরও বড় হবে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, দাম বাড়ানোর সরকারি প্রস্তাবের বিপরীতে গ্রাহকদের জন্য গ্যাসের দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখাই হবে কমিশনের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ।

এদিকে এপ্রিল থেকে উচ্চমূল্যের এলএনজি আমদানির কারণে গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিকল্প নেই বলে মনে করছে জ্বালানি বিভাগ।