সকল শিরোনাম

সেবা খাতে ঘুষ-দুর্নীতি বন্ধ হবে কবে? কেন সাংবাদিক নির্যাতন? সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর সর্বোচ্চ সাজা ৫ বছরের জেল রূপগঞ্জে গাজা ও ইয়াবাসহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার আসামের তালিকা নিয়ে বাংলাদেশের দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই: ভারতীয় হাইকমিশনার প্রধানমন্ত্রী বললে পদত্যাগ করব : নৌমন্ত্রী শিশুরা আমাদের চোখ-কান খুলে দিয়েছে : মনিরুল শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নিলেন প্রধানমন্ত্রী তারকারা রাস্তায় পুলিশের নামে মামলা দিতে সার্জেটকে বাধ্য করলো শিক্ষার্থীরা আন্দোলনও থামুক; সড়কও নিরাপদ হউক দু:স্থদের মাঝে বিসিএস পুলিশ পরিবারের ঈদ বস্ত্র বিতরণ ৬ কারণে বিশ্বকাপ জিতবে ব্রাজিল সবার জন্য স্বাস্থ্য প্রধানমন্ত্রীর কানাডা সফর ৬ জুন  দ্রব্যমূল্য বাড়ার মাস কী রমজান! সবকিছু স্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে লিখিত স্থগিতাদেশ পেলে গাজীপুর সিটি নির্বাচনের জন্য আপিল করা হবে : অ্যাটর্নি জেনারেল সৌহার্দ্যপূর্ণ আন্তঃবাহিনী সম্পর্ক বজায় রাখার আহবান আইজিপির গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন ২৬ জুন বিজ্ঞানমনস্ক জ্ঞানভিত্তিক সমাজ বিনির্মানে শিক্ষকদের ভূমিকা শীর্ষক কর্মশালা নির্বাচনী মাঠে একঝাঁক তরুণ মনোনয়নপ্রত্যাশী দলের নয়, কাজের লোককে ভোট দিন: ওবায়দুল কাদের খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়েও উদ্বেগজনক নির্বাচনী প্রচারণায় ঘুম নেই ঢাকা দক্ষিনের প্রার্থীদের


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

কেন সাংবাদিক নির্যাতন? সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর সর্বোচ্চ সাজা ৫ বছরের জেল প্রধানমন্ত্রী বললে পদত্যাগ করব : নৌমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নিলেন প্রধানমন্ত্রী তারকারা রাস্তায় পুলিশের নামে মামলা দিতে সার্জেটকে বাধ্য করলো শিক্ষার্থীরা শিক্ষার্থীদের ওপর ভর করছে বিএনপি: কাদের ৬ কারণে বিশ্বকাপ জিতবে ব্রাজিল গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন ২৬ জুন দলের নয়, কাজের লোককে ভোট দিন: ওবায়দুল কাদের রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনে ৫টি খাল খনন করবে ওয়াসা আগামী নির্বাচনে অংশ গ্রহন না করলে বিএনপি অস্থিত্ব সংকটে পড়বে নারী ও শিশু নির্যাতন কমছে না কেন? সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন আশ্বাসের পরও চালের দাম কমছে না অস্বস্তিতে ক্রেতারা উন্নয়নের নামে নদী খাল ভরাট করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

বিএনপির কর্মসূচিতে জামায়াত না থাকলেও অসুবিধা নেই

শীর্ষ সংবাদ, সকল শিরোনাম, সর্বশেষ সংবাদ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৪ | Thursday, February 22, 2018

নিউজ-বাংলাদেশ, ঢাকা: কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে বিএনপির পাশে নেই দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক মিত্র জামায়াতে ইসলামী। এতে ২ দলের দূরত্ব বা টানাপোড়েন বলতে মানতে নারাজ বিএনপি। বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের দাবি, জামায়াতকে ছাড়াই সফল হচ্ছে তাদের কর্মসূচি।

দূর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠানোর পর রায়ের সমালোচনা ও জোট প্রধানের মুক্তি দাবি করে দুবার বিবৃতি দিয়েই দায়িত্ব শেষ করেছে জামায়াতে ইসলামী। জোট প্রধানের মুক্তির আন্দোলনে ২০ দলের নেতাকর্মীরা পথে নামলেও মাঠে নেই দেড় যুগের মিত্র জামায়াত। জোটের অন্য নেতারা উপস্থিত থাকলেও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির কোনও কর্মসূচিতেই অংশ নেয়নি জামায়াতের কর্মী, সমর্থকরা।

জোট প্রধানের মুক্তির দাবিতে দেওয়া কর্মসূচির কোনোটিতেই জামায়াতের না থাকার কারণ হিসেবে দলটির প্রতি সরকারের দমন পিড়নকেই দায়ী করছেন বিএনপির জেষ্ঠ্য নেতারা।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেন, জামায়াতের এখন তেমন কেউ নেই। তাদের প্রধান নেতারা মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত হয়েছেন।

জামায়াতের সঙ্গে বিএনপির বন্ধুত্ব আদর্শিক নয় নির্বাচনী বলে দাবী করে বিএনপি নেতাদের দাবি, জামায়াত বিএনপির পাশেই রয়েছে।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ইনাম আহমেদ চৌধুরী বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে হয়তো জামায়াত কর্মীরা নেই, তাতে অসুবিধা হচ্ছে না। বিএনপি নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে। দৃঢ়ভাবে মোকাবিলা করার শক্তি সাহস বিএনপির রয়েছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, এখানে কার সাথে কি সম্পর্ক চলার পথে কারো মাথা ব্যথা নেই। কেউ আগে চলছে, কেউ পেছনে চলছে, কেউ ডানে, কেউ বামে সবার পথ চলা একটাই গন্তব্যস্থল একটাই।

তবে জোটভিত্তিক কর্মসূচি দেওয়া হলে জামায়াত অংশ নিতে পারে বলেও জানান বিএনপির নেতারা।