সর্বশেষ সংবাদ: বিজ্ঞানমনস্ক জ্ঞানভিত্তিক সমাজ বিনির্মানে শিক্ষকদের ভূমিকা শীর্ষক কর্মশালা নির্বাচনী মাঠে একঝাঁক তরুণ মনোনয়নপ্রত্যাশী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়েও উদ্বেগজনক নির্বাচনী প্রচারণায় ঘুম নেই ঢাকা দক্ষিনের প্রার্থীদের ৥ সড়ক দুর্ঘটনা : মায়া কান্নায় কি লাভ? ডেমরায় ট্রাফিকের ঝটিকা অভিযান ও অপরূত কিশোরী উদ্ধার সিসি ক্যামেরার আওতায় রামপুরা ট্রাফিক জোন ঢাকা-৫ আসনে বিএনপি-আ’লীগে একাধিক প্রার্থী, সুবিধাজন অবস্থানে জাপা খালেদাকে জেলে রেখে নির্বাচনের কথা ভাবতে পারে না বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশ গ্রহন না করলে বিএনপি অস্থিত্ব সংকটে পড়বে

সকল শিরোনাম

৬ কারণে বিশ্বকাপ জিতবে ব্রাজিল সবার জন্য স্বাস্থ্য প্রধানমন্ত্রীর কানাডা সফর ৬ জুন  দ্রব্যমূল্য বাড়ার মাস কী রমজান! সবকিছু স্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে লিখিত স্থগিতাদেশ পেলে গাজীপুর সিটি নির্বাচনের জন্য আপিল করা হবে : অ্যাটর্নি জেনারেল সৌহার্দ্যপূর্ণ আন্তঃবাহিনী সম্পর্ক বজায় রাখার আহবান আইজিপির গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন ২৬ জুন বিজ্ঞানমনস্ক জ্ঞানভিত্তিক সমাজ বিনির্মানে শিক্ষকদের ভূমিকা শীর্ষক কর্মশালা নির্বাচনী মাঠে একঝাঁক তরুণ মনোনয়নপ্রত্যাশী দলের নয়, কাজের লোককে ভোট দিন: ওবায়দুল কাদের খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়েও উদ্বেগজনক নির্বাচনী প্রচারণায় ঘুম নেই ঢাকা দক্ষিনের প্রার্থীদের ৥ সড়ক দুর্ঘটনা : মায়া কান্নায় কি লাভ? ডেমরায় ট্রাফিকের ঝটিকা অভিযান ও অপরূত কিশোরী উদ্ধার এমপি হতে শেষ চেষ্টায় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা যারাই ক্ষমতায় আসে তারাই ক্ষমতার অপপ্রয়োগ করে: ড. কামাল রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনে ৫টি খাল খনন করবে ওয়াসা যৌন হয়রানি প্রতিরোধে খসড়া আইনের প্রস্তাব সিসি ক্যামেরার আওতায় রামপুরা ট্রাফিক জোন ঢাকা-৫ আসনে বিএনপি-আ’লীগে একাধিক প্রার্থী, সুবিধাজন অবস্থানে জাপা ফখরুলের বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন রিজভী কালবৈশাখীর কারণে রূপালী ব্যা‍ংকের লিখিত পরীক্ষা বাতিল খালেদাকে জেলে রেখে নির্বাচনের কথা ভাবতে পারে না বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশ গ্রহন না করলে বিএনপি অস্থিত্ব সংকটে পড়বে


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর কানাডা সফর ৬ জুন হাসান ইন্তিসার এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে লিখিত স্থগিতাদেশ পেলে গাজীপুর সিটি নির্বাচনের জন্য আপিল করা হবে : অ্যাটর্নি জেনারেল সৌহার্দ্যপূর্ণ আন্তঃবাহিনী সম্পর্ক বজায় রাখার আহবান আইজিপির নির্বাচনী মাঠে একঝাঁক তরুণ মনোনয়নপ্রত্যাশী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়েও উদ্বেগজনক ৥ সড়ক দুর্ঘটনা : মায়া কান্নায় কি লাভ? এমপি হতে শেষ চেষ্টায় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা যারাই ক্ষমতায় আসে তারাই ক্ষমতার অপপ্রয়োগ করে: ড. কামাল যৌন হয়রানি প্রতিরোধে খসড়া আইনের প্রস্তাব খালেদাকে জেলে রেখে নির্বাচনের কথা ভাবতে পারে না বিএনপি খালেদা জিয়াকে বাদ দিয়ে জাতীয় নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হতে পারে না উন্নয়নে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে : মেনন উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে আত্মহত্যা

ক্ষমতার অপব্যবহার হয়েছে, টাকা আত্মসাৎ হয়নি : ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

জাতীয় সংবাদ, সকল শিরোনাম | ২৮ মাঘ ১৪২৪ | Saturday, February 10, 2018

---নিউজ-বাংলাদেশ, ঢাকা: খালেদা জিয়ার চিন্তা-চেতনার অনেক বেশি উন্মেষ হয়েছে। তিনি বলেছেন, আইনের প্রতি শ্রাদ্ধাশীল থাকতে, শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ঐক্যবদ্ধ থাকতে, কারো কাছে মাথানত করবো না এর দ্বারা তিনি অনেক বেশি সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। সাহসীচেতা লোকজন তাকে একজন সাহসী মহিলা হিসাবেই চিনেন। আর বক্তব্যে তার নেতা-কর্মীদের উজ্জেবিত করেছে, দল উজ্জেবিত হয়েছে এতে কোনো সন্দেহ নেই।

খালেদা জিয়ার রায় পরবর্তী অবস্থা নিয়ে আলাপকালে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী  এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, খেলার মাঠে থাকলে আমরা সবাই সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করি। ঠিক আওয়ামী লীগও একটা রাজনৈতিক সুবিধা নেওয়ার জন্য বিচারটা এই বছর শেষ করলো। এর জন্য তাদের দোষ দেওয়া যাবে না, কেন তারা এবছর রায়টা শেষ করলো। তবে আমার মনে হয় না, এই বিচার দ্বারা বিএনপির কোনো ক্ষতি হয়েছে বরং লাভ-ই হয়েছে। তার জেল হয়েছে, কিছুদিন পর হয়তো তিনি জামিন নিয়ে বের হয়ে আসবেন।

তিনি আরও বলেন, এমনটা চিন্তা করলে হবে না, নির্বাচন একদলীয় হবে খালেদা জিয়াকে জেলে নেওয়ার মাধ্যমে। বিএনপি নিশ্চয়ই নির্বাচনে যাবে এবং নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হবে। সব মিলিয়ে একটা ভালো খেলা হবে। রায়ের কারণে বিএনপির কোনো অসুবিধা হয়নি। এতে জনগণের তার প্রতি সহানুভূতি বাড়ছে। কারণ রায় যে হয়েছে, এটা একটা প্রশ্নবিদ্ধ রায়। যার জন্য বেগম জিয়ার মামলাটা হয়েছে, সেই টাকা তো আর আত্মসাৎ হয়নি, তা ব্যাংকেই রয়ে গেছে। ব্যাংকে সেই টাকা সুদে আসলে এখন তিন গুণ হয়েছে। তাহলে এখানে আত্মসাৎ হলো কোথায়? যেটা হয়েছে, সেটা হলো ক্ষমতার অপব্যবহার।

তিনি বলেন, রায়টা বৃহস্পতিবার দেওয়ায় জনগণ আরও বেশি ক্ষুব্ধ হয়েছে। এটা একটা উদ্দেশ্য প্রণোদিত রায়, সরকারের নির্দেশনায় রায়। কারণ আগেই পত্রিকায় ঘোষণা দিয়ে রায় হয়েছে। জেল প্রস্তুত, জজের সাথে জেলারের কথা হয়েছিল নাকি যে বেগম জিয়ার শাস্তি হবে? যা-ই হোক, এতে বিএনপি লাভবান হয়েছে, যদি তারা এটা গ্রহণ করতে পারে। কারণ বিএপির যে বর্তমান কমিটি আছে, তারা এখনো ঘুমায়। তারা এই সুযোগটা গ্রহণ করতে পারবে কিনা, এটাই দেখার বিষয়।

তিনি আরও বলেন, বেগম জিয়া পরিষ্কারভাবে বলে দিয়েছেন তার নেতাকর্মীদের শান্তিপূর্ণভাবে গণতান্ত্রিক আন্দোলন করতে। তবে সরকার যদি তাদের ভাব প্রকাশ করতে না দেয়, তাদের রাস্তায় নামতে না দেয়, তাহলে একটা আশঙ্কা থাকতেও পারে। উগ্রবাদ আসবে কী না, এটা নির্ভর করে সরকারের উপর। কারণ বিএনপি তো এখন গণতান্ত্রিকভাবেই এগোচ্ছে।