সকল শিরোনাম

দূষিত বায়ুর দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়! ৭ মার্চের জনসভা সফল করতে নানা উদ্যোগ আ.লীগের দেশে আগাম নির্বাচনের সম্ভাবনা দেখছেন এরশাদ আমার কর্মকান্ডে মানুষের ক্ষতি হলে অবসর নিব ডিসেম্বর নয়, এখনই পদত্যাগ করুন: অর্থমন্ত্রীকে বাবলু বিএনপি হচ্ছে রাজনীতির বিষবৃক্ষ, সংসদে তথ্যমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ‘কথাবার্তা মহাসড়কের মতো বেসামাল’: রিজভী অযত্ন অবহেলায় অরক্ষিত ডেমরার শহীদ মিনার `শেখ হাসিনার হাত থেকে পার পাওয়ার উপায় নেই কারও’ রাজনৈতিক দলগুলো ছাত্রদের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে: এরশাদ খালেদা জিয়ার বিষয়ে কিছুই করার নেই: ইসি বিশ্ব ভালবাসা দিবসে যানবাহন চালকদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানালো রামপুরা ট্রাফিক জোন ম্যাডামকে কোনো ডিভিশন দেওয়া হয়নি: মওদুদ ৩২ ধারা বাতিল না করলে তথ্যমন্ত্রী পদত্যাগ চান সাংবাদিক নেতারা খালেদা জিয়াকে একটি স্যাঁতসেঁতে ঘরে একা রাখা হয়েছে, এটা অমানবিক : ফখরুল ক্ষমতার অপব্যবহার হয়েছে, টাকা আত্মসাৎ হয়নি : ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বিএনপির আন্দোলন ও পুলিশের অবস্থান ইতিবাচক : ড. বদিউল আলম মজুমদার যে কারণে বিএনপির আন্দোলনে তেজ নেই আসছে তৌহিদ এলাহীর ‘বইকাটা’ বিদেশি গণমাধ্যমগুলোতে ব্রিফ করছে বিএনপি রাজধানীর প্রবেশদ্বার ডেমরায় নিত্য যানজট : ট্রাফিকের নানা উদ্যোগ দেশে এখন বন্য আইন চলছে : মান্না একজন দন্ডপ্রাপ্ত ব্যাক্তিকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের দায়িত্ব দিয়েছে বিএনপি: কাদের আপিল করলে খালেদার সাজা বেড়ে ১০বছর হতে পারে: নৌমন্ত্রী


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

দূষিত বায়ুর দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়! ডিসেম্বর নয়, এখনই পদত্যাগ করুন: অর্থমন্ত্রীকে বাবলু ওবায়দুল কাদেরের ‘কথাবার্তা মহাসড়কের মতো বেসামাল’: রিজভী রাজনৈতিক দলগুলো ছাত্রদের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে: এরশাদ ৩২ ধারা বাতিল না করলে তথ্যমন্ত্রী পদত্যাগ চান সাংবাদিক নেতারা ক্ষমতার অপব্যবহার হয়েছে, টাকা আত্মসাৎ হয়নি : ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী যে কারণে বিএনপির আন্দোলনে তেজ নেই দেশে এখন বন্য আইন চলছে : মান্না গ্যাস-বিদ্যুৎ সংকটে ব্যাহত টেক্সটাইল কারখানার উৎপাদন ‘ক্ষমতায় থাকলে সব মাফ আর বিরোধী দলে থাকলেই সব অপরাধ’ মিতালীর সঙ্গে দোয়েল পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির পেছনে সিন্ডিকেট ছিল না স্বপ্নবাজের স্বপ্ন… ডেমরার ষ্টুডেন্ট এইড স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত নির্বাচন স্থগিতে বিএনপিকে অভিযুক্ত করা উচিত: হানিফ

যে কারণে বিএনপির আন্দোলনে তেজ নেই

জাতীয় সংবাদ, সকল শিরোনাম | ২৮ মাঘ ১৪২৪ | Saturday, February 10, 2018

---নিউজ-বাংলাদেশ,ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কারাদণ্ডের প্রতিবাদে শুক্রবার ঢাকায় বিক্ষোভ করেছে বিএনপির কর্মীরা। তবে বিএনপির কর্মীদের বিক্ষোভে এবার তেমন তেজ নেই মন্তব্য করে সংবাদ প্রকাশ করেছে কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা।

এর কারণ হিসেবে পত্রিকাটি বলেছে, বিএনপির এবারের আন্দোলনের সঙ্গে জামায়াত ও তাদের অঙ্গসংগঠন শিবিরের নেতাকর্মীরা মাঠে নেই। ফলে বিএনপির সরকার ফেলার আন্দোলনের হুমকিও মাঠে মারা গিয়েছে। খালেদা জিয়ার কারাদণ্ডের ঘটনা থেকে বস্তুত দূরত্ব বজায় রাখছে জামায়াত। এমনকি রায়ের পর এখনো পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে জামায়াত কোনও প্রতিক্রিয়া দেখায়নি বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে দুর্নীতির দায়ে ২৮ বছর আগে বাংলাদেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে জেলে যেতে হয়েছিল খালেদা জিয়ার আমলে। ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে সেই পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগার এখন বন্দিশূন্য। শহরের বাইরে কেরানিগঞ্জে আধুনিক সংশোধনাগার গড়ে হাজার দুয়েক বন্দিকে সেখানে স্থানান্তর করা হলেও সেখানে কারা কর্তৃপক্ষের কিছু প্রশাসনিক কাজ চলে। নিঝুম এই পুরনো কারাগারেই বৃহস্পতিবার রাখা হয় কারাদণ্ড পাওয়া খালেদা জিয়াকে।

এরশাদের দল জাতীয় পার্টি এই ঘটনাকে ‘ইতিহাসের প্রতিশোধ’ হিসেবে দেখছে। দলের সাংসদ ইয়াহইয়া চৌধুরী বলেন, ‘এরশাদ জেলে একটি কুলগাছ লাগিয়েছিলেন। এত দিনে তাতে নিশ্চয়ই কুল হচ্ছে। জেল কর্তৃপক্ষকে বলব, কারাবিধানে আপত্তি না থাকলে সেই কুল যেন তারা খালেদাকে খেতে দেন!’

বৃহস্পতিবার রায়ের পরে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে রাখা হয়েছে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের যে ঘরে, সেটি আগে জেল সুপারের অফিস ছিল। বিএনপি নেত্রীর জন্য সেই কক্ষে এসি বসানো হয়েছে। খালেদা জিয়ার আইনজীবীর আবেদনে তার ব্যক্তিগত গৃহকর্মী ফতেমাকেও সঙ্গে থাকার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তবে কয়েক দিনের মধ্যে খালেদা জিয়াকে মহিলা ওয়ার্ডের শিশুদের ডে-কেয়ার সেন্টারের দুটি বড় ঘরে স্থানান্তর করা হতে পারে।

বৃহস্পতিবার রাতেই আইনজীবীরা জেলে গিয়ে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল ও জামিনের আবেদনে খালেদার সই নিয়ে গিয়েছেন। রায়ের প্রত্যয়িত কপি হাতে পাওয়ার পরে হাইকোর্টে এই আবেদন করা হবে। তবে আপিল গৃহীত হলে খালেদার ভোটে দাঁড়াতে কোনও সমস্যা হবে না বলেই আইনজীবীদের অভিমত।