সকল শিরোনাম

বৈশাখ : কায়মনে বাঙালি হ, বাঙালি হ, বাঙালি হ… বইমেলায় পাঠক প্রিয়তা পেয়েছে ডা. বদরুল আলমের অদম্য রম্য রচনার বই ‘ এক্স ফাইলস’ উপ-সম্পাদকীয় ইসলামের দৃষ্টিতে ভালবাসা অর্থনীতিতে এগুচ্ছে দেশ; সভ্যতায় কেন পিছিয়ে? নাসর ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা পাকিস্তানের শিগগিরই ছাত্রদলের নতুন কমিটি শুধু জিপিও-৫ নয়, সুনাগরিক হওয়াও জরুরি : শিক্ষামন্ত্রী বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ভালো হচ্ছে এবার বাড়ল ডালের দাম ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের পাঁচ দশক ৩ জেলায় ২ কিশোরী ও ১ শিশু ধর্ষণের শিকার মিলল সেন আমলের রাজবাড়ি বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে যেতে হবে : প্রধানমন্ত্রী যৌবন ধরে রাখবে যেসব খাবার কোনো নির্বাচনেই অংশ নেবে না বিএনপি: মির্জা ফখরুল ফেসবুককে বিদায়ের কারণ জানালেন ন্যান্সি বিশ্বের শীর্ষ ১০০ চিন্তাবিদদের তালিকায় শেখ হাসিনা হাঁস মুরগি মাছে বিষাক্ত পদার্থ সরকারি চাকরিতে প্রতিবন্ধী কোটা বহাল ৫ কোম্পানির পানি পানের উপযোগী নয়: বিএসটিআই বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তন ছিল প্রজাতন্ত্রের দৃঢ় ভিত্তি ভয়ের সংস্কৃতিতে আড়ষ্ট সমাজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কাছে দেশবাসীর ৩টি চাওয়া দুর্নীতির একি রীতি? নিবার্চন উপলক্ষ্যে র‌্যাবের নিরাপত্তা বলয়ে রূপগঞ্জ


৩টি পায়েস বানানোর রেসিপি

এক্সক্লুসিভ | ২৩ পৌষ ১৪২৪ | Saturday, January 6, 2018

পায়েস খেতে ভালোবাসেন সবাই। জন্মদিন হোক বা শুভ অনুষ্ঠান পায়েস মেনুতে থাকেই খাবার পরে। পায়েস যা মিষ্টান্ন নামে বেশি পরিচিত তা বানানোর সেরা ৩টি রেসিপি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। চলুন দেখে নেওয়া যাক কি কি ভাবে বানাবেন পায়েস।

আমের পায়েস
উপকরণ

দুধ ১ থেকে ১./২ লিটার। গোবিন্দভোগ চাল ১ মুঠো। চিনি ১/২ কাপ বা স্বাদ অনুযায়ী। ম্যাংগো পাল্প ১/২ কাপ (আম টুকরো করে কেটে মিসক্সিতে পেস্ট বানানো), কাজু ও কিসমিস
প্রণালী
প্রথমে গোবিন্দভোগ চালকে আগে থেকে ধুয়ে জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে, ৩০ থেকে ৪০ মিনিট। এরপর সসপেন বা হাড়িতে দুধের সাথে অল্প জল মিশিয়ে দুধ জাল দিতে হবে। দুধ যাতে না পুড়ে যায় তার জন্য মাঝে মাঝে দেখতে হবে। দুধ যখন ঘন হয়ে আসবে তখন তাতে গোবিন্দভোগ চাল দিয়ে আবার ভালো করে নাড়তে হবে। চাল যখন প্রায় সেদ্ধ হয়ে আসবে তখন স্বাদ অনুযায়ী চিনি দিয়ে ভালো করে নেড়ে যেতে হবে। এবার ওতে একটি বা দুটি এলাচ থেঁতো করে দিয়ে দিতে হবে। ৫ থেকে ১০ মিনিট পর যখন দুধ পুরো ঘন হয়ে যাবে তখন গ্যাস বন্ধ করে দিতে হবে। এবার পায়েস ঠান্ডা হয়ে যাবার পর ওতে আমের রস বা ম্যাংগো পাল্প ভালো করে মিশিয়ে দিয়ে অন্য একটি পাত্রে ঢেলে কাজু ও কিসমিস ছড়িয়ে দিন।

গুড়ের পায়েস
উপকরণ
দুধ ১.১/২ লিটার থেকে ২ লিটার। গোবিন্দভোগ চাল এক মুঠো। তেজপাতা ১টি বড়। এলাচ ৩ থেকে ৪ টি খেঁজুরের গুড় ১/২ কাপ বা স্বাদ অনুযায়ী। কাজুবাদাম, কিসমিস, পেস্তা পরিমান মতো।

প্রণালী
প্রথমে গোবিন্দভোগ চাল জলে ভালোকরে ধুয়ে ভিজিয়ে রাখতে হবে ২০ থেকে ৩০ মিনিট। এবার একটি পাত্রে (সসপেন বা হাঁড়ি হলে ভালো) দুধ এবং ১/২ কাপ জল মিশিয়ে জাল দিতে থাকুন। ওতে তেজ পাতা দিয়ে একটু পরপর ভালো করে নাড়তে থাকুন। দুধ যখন অনেকটা ঘন হয়ে আসবে বা অর্ধেক মতো হয়ে আসবে তখন ওতে চাল মিশিয়ে দিন এবং একটু পরপর নাড়তে থাকুন। এতে দুধ পুড়ে যাবে না। চাল মেশানোর আগে একটি পাত্রে কিছুটা গরম দুধ (২-৩ চামচ ) নিয়ে ওতে খেঁজুরের গুড় মিশিয়ে রাখুন। চাল মোটামুটি সেদ্ধ হয়ে আসলে তাতে দুধ ও গুঁড়ের মিশ্রণটি মিশিয়ে দিন। এবার ভালো করে নাড়তে থাকুন। মনে রাখবেন চাল সেদ্ধ হবার পরই গুড় মেশাতে হবে। প্রয়োজনে আর একটু চিনি দেওয়া যেতে পারে। পায়েসে কতটা গুড় বা চিনি দিতে হবে তা সম্পূর্ণ ভাবে আপনার স্বাদের ওপর নির্ভর করবে। এবার ওতে এলাচ থেঁতো করে দিয়ে দিন। আরো ৫ থেকে ১০ মিনিট পর গ্যাস বন্ধ করে দিন। এবার ওতে কিসমিস, কাজু ও পেস্তা ছড়িয়ে দিন। ঠান্ডা হতে দিন। ঠান্ডা হয়ে গেলে পরিবেশন করুন।

ছানার পায়েস
উপকরণ

ছানা বা পনির ৩০০ গ্রাম। দুধ ১ লিটার। চিনি স্বাদ অনুযায়ী। এলাচ গুঁড়ো ১/২ চা চামচ। স্যাফ্রন। কাজু বাদাম ১০ থেকে ১২ টি টুকরোকে কাটা। কিসমিস ১০ থেকে ১২ টি। আলমন্ড ৪ থেকে ৫ টি টুকরো করে কাটা।প্রণালী

প্রথমে ছানার সাথে অল্প ময়দা মিশিয়ে পনির এর ক্ষেত্রে ময়দা মেশানোর প্রয়োজন নেই। ভালো করে চটকে মেখে নিয়ে ছোট ছোট বলের মতো বানিয়ে নিতে হবে।

এবার একটি পাত্রে দুধ জাল দিতে হবে। গ্যাসের আঁচ কম করে দুধ ক্রমাগত নাড়িয়ে যেতে হবে যতক্ষন না ঘন হয়ে যাচ্ছে। এবার ওতে স্বাদ মতো চিনি, স্যাফ্রন, এলাচ গুঁড়ো, কষিয়ে আবার নাড়তে থাকুন। এবার কাজু, কিসমিস ও আলমন্ড মিশিয়ে দিন। দুধ পুরোপুরি ঘন ক্রিমের মতো হয়ে আসলে ওতে ছানা বা পনিরের বলগুলি দিয়ে দিন। আরো ৪ থেকে ৫ মিনিট নাড়তে থাকুন। ৫ মিনিট পর গ্যাস বন্ধ করে দিন। ঠান্ডা হয়ে গেলে ফ্রিজে রেখে দিন। ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করার সময় পায়েসের ওপর কাজু, আলমন্ড টুকরো ছড়িয়ে দিন।