সকল শিরোনাম

৥ সড়ক দুর্ঘটনা : মায়া কান্নায় কি লাভ? ডেমরায় ট্রাফিকের ঝটিকা অভিযান ও অপরূত কিশোরী উদ্ধার এমপি হতে শেষ চেষ্টায় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা যারাই ক্ষমতায় আসে তারাই ক্ষমতার অপপ্রয়োগ করে: ড. কামাল রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনে ৫টি খাল খনন করবে ওয়াসা যৌন হয়রানি প্রতিরোধে খসড়া আইনের প্রস্তাব সিসি ক্যামেরার আওতায় রামপুরা ট্রাফিক জোন ঢাকা-৫ আসনে বিএনপি-আ’লীগে একাধিক প্রার্থী, সুবিধাজন অবস্থানে জাপা ফখরুলের বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন রিজভী কালবৈশাখীর কারণে রূপালী ব্যা‍ংকের লিখিত পরীক্ষা বাতিল খালেদাকে জেলে রেখে নির্বাচনের কথা ভাবতে পারে না বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশ গ্রহন না করলে বিএনপি অস্থিত্ব সংকটে পড়বে খালেদা জিয়াকে বাদ দিয়ে জাতীয় নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হতে পারে না নারী ও শিশু নির্যাতন কমছে না কেন? ১৫ ও ১৬ এপ্রিল ঢাকায় বিপিও সামিট উন্নয়নে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে : মেনন সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন আশ্বাসের পরও চালের দাম কমছে না অস্বস্তিতে ক্রেতারা স্বাধীনতার ইতিহাস নতুন প্রজন্মের মাঝে জাগ্রত করতে মাতুয়াইলে আলোচনা সভা উন্নয়নের নামে নদী খাল ভরাট করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী এখনও ৩৫ হাজার কোটি টাকা ফেরৎ দেয়নি পাকিস্তান! উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে আত্মহত্যা আবারো বাড়ছে গ্যাসের দাম মুচলেকা দিলেই সময় পাবে বিজিএমইএ ৪টি প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কৃত করবেন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বিকল্পে জোবাইদা রহমান, আ.লীগেও ভাগ বসাতে তৎপর


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

আসছে তৌহিদ এলাহীর ‘বইকাটা’ ডিগ্রী পরীক্ষায় ডেমরা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ব্যাপক সাফল্য স্থায়ী ক্যাম্পাসে যায়নি ৩৪ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ধর্মের নামে একটি কুচক্রিমহল শিক্ষিতযুবকদের ভুলপথে নেয়ার ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে: হাবিবুর রহমান মোল্লা এমপি ব্যাংকে জমে থাকা ৬১৪ কোটি টাকার লভ্যাংশ উধাও কওমি মাদ্রাসার স্বীকৃতি: গণভবনে আহমদ শফী রাবির আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের মধ্যে ‘ধাক্কাধাক্কি’ জিপিএ-৫ বনাম সত্যিকার মেধার উন্নয়ন ধর্মরাজিক উচ্চ বিদ্যালয়ের নবীন বরণ ও বিদায় সংবর্ধনা পিএসসিতে স্কুল সেরা পঁয়ষট্টির বাছিরন জেএসসি ও জেডিসিতে পাশের হার ৯২.৩৩ আন্তর্জাতিক উপমা-খোলাচিঠি কবিতা উৎসব-২০১৬ অনুষ্ঠিত ডেমরায় অক্সফোর্ড স্কুলের পরীক্ষার্থীদের বিদায় উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল ডেমরায় সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সভা মেট্রোপলিটন ক্রিয়েটিভ কলেজ ডেমরা শাখার শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠান

স্থায়ী ক্যাম্পাসে যায়নি ৩৪ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

শিক্ষা সাহিত্য, সকল শিরোনাম | ২০ পৌষ ১৪২৪ | Wednesday, January 3, 2018

স্থায়ী ক্যাম্পাসে যায়নি ৩৪ বেসরকারি  বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষা ও প্রশাসনিক কার্যক্রম স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্থানান্তরের জন্য ৩৯টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে সময় বেঁধে দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বিভিন্ন ধাপে বেঁধে দেয়া এ সময়সীমা শেষ হয়েছে গত ৩১ ডিসেম্বর। তার পরও স্থায়ী ক্যাম্পাসে পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) ও সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, মন্ত্রণালয়ের বেঁধে দেয়া সময় মেনে স্থায়ী ক্যাম্পাসে শিক্ষা ও প্রশাসনিক কার্যক্রম স্থানান্তর করেছে মাত্র পাঁচটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়— পুণ্ড্র, বাংলাদেশ ইসলামী, ইস্ট ডেল্টা, আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ ও অতীশ দীপঙ্কর বিশ্ববিদ্যালয়। তাগাদাপ্রাপ্ত বাকি ৩৪টি বিশ্ববিদ্যালয় তাদের পূর্ণাঙ্গ শিক্ষা ও প্রশাসনিক কার্যক্রম এখনো স্থায়ী ক্যাম্পাসে নিতে পারেনি। এজন্য আরো সময় চেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো।

জানতে চাইলে ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান এ প্রসঙ্গে বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্থানান্তরের বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসির সমন্বয়ে একটি কমিটি করা হয়েছে। ওই কমিটির সিদ্ধান্তের আলোকেই বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে স্থানান্তরের জন্য সময় বেঁধে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ই বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে ক্যাম্পাস স্থানান্তরে ব্যর্থ হয়েছে। ইউজিসি বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন পাঠাবে। সে আলোকে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

বেসরকারি সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্থানান্তরের জন্য গত বছরের অক্টোবরে চিঠি দেয় ইউজিসি। কিন্তু ক্যাম্পাস স্থানান্তরের জন্য আরো তিন বছর সময় চেয়ে ইউজিসি চেয়ারম্যান বরাবর আবেদন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান মো. রেজাউল করিম স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত চিঠিতে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালের মার্চের মধ্যে স্থায়ী ক্যাম্পাসে একটি বহুতল ভবনের নির্মাণকাজ শুরু হবে। নির্মাণকাজ সম্পন্ন করে ভবনটিতে সব প্রোগ্রামের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করতে আরো তিন বছর সময় প্রয়োজন।

সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এএনএম মেশকাত উদ্দীন বলেন, স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্থানান্তরের বিষয়ে সব বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রগতি এক নয়। আমরা শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসিকে আমাদের অগ্রগতির কথা জানিয়েছি। সে আলোকে আরো কিছু সময় চেয়েছি।

বেঁধে দেয়া সময়ে সব ধরনের শিক্ষা ও প্রশাসনিক কার্যক্রম স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্থানান্তর করতে পারেনি ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। নিজস্ব বহুতল ভবন নির্মাণ না হওয়া পর্যন্ত সময় চেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টি।

জানতে চাইলে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার অধ্যাপক মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, বাড্ডায় স্থায়ী ক্যাম্পাসে ৮০ হাজার বর্গফুট বহুতল ভবনের নির্মাণকাজ প্রক্রিয়াধীন। ভবন নির্মাণ সমাপ্তির জন্য সর্বশেষ সময় দেয়ার জন্য আবেদন করেছি।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মেনে স্থায়ী ক্যাম্পাসে পূর্ণাঙ্গ শিক্ষা কার্যক্রম স্থানান্তরে ব্যর্থ হয়েছে দ্য পিপলস ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশও। এজন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসির কাছে আরো এক বছর সময় চেয়ে আবেদন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। বিষয়টি নিশ্চিত করে পিপলস ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার মো. মোফাক্কের বলেন, আমাদের ১১টি প্রোগ্রামের মধ্যে ছয়টির কার্যক্রম স্প্রিং সেমিস্টার থেকে নরসিংদীর স্থায়ী ক্যাম্পাসে শুরু হবে। বাকি সাতটি প্রোগ্রাম স্থানান্তরের জন্য আরো এক বছর সময় প্রয়োজন। এজন্য মন্ত্রণালয় ও ইউজিসিকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছি।

বেঁধে দেয়া সময়ে স্থায়ী ক্যাম্পাসে যেতে না পারা আরেকটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় উত্তরা ইউনিভার্সিটি। সময় চেয়ে আবেদন করেছে তারাও। বিশ্ববিদ্যালয়টির রেজিস্ট্রার কাজী মহিউদ্দিন বলেন, তুরাগ থানার ভাটুরিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়টির স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের কাজ চলছে। সব ধরনের কার্যক্রম স্থানান্তরে বাস্তব অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে আরো এক বছর সময়ের প্রয়োজন। তদারক প্রতিষ্ঠানকে বিষয়টি অবহিত করেছি।

একইভাবে এক বছর সময় বাড়ানোর আবেদন করেছে নর্দান ইউনিভার্সিটি। স্থায়ী ক্যাম্পাসে যেতে আরো পাঁচ বছর সময় চেয়েছে ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটি। আর স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি সময় চেয়েছে চার বছর। নিজস্ব ক্যাম্পাসে পূর্ণাঙ্গ শিক্ষা ও প্রশাসনিক কার্যক্রম শুরু করতে না পারা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে আরো আছে লিডিং ইউনিভার্সিটি, মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি, শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি, প্রাইম, রয়েল ও প্রাইম এশিয়া ইউনিভার্সিটি।

ইউজিসি ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সব ধরনের শিক্ষা ও প্রশাসনিক কার্যক্রম স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্থানান্তর প্রক্রিয়া পুরোপুরি সম্পন্ন না হলেও অগ্রগতি আছে কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের। এগুলো হলো— ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশন্যাল ইউনিভার্সিটি (ইউআইইউ), ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস (ইউল্যাব), গ্রীন, ওয়ার্ল্ড ও ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি। ইউজিসি ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে তাদের অগ্রগতির বিষয়টি অবহিত করেছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসি সূত্রমতে, দেশের মোট ৯৫টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ৫১টির স্থায়ী ক্যাম্পাসে কার্যক্রম শুরুর সময় শেষ হয়েছে বহু আগে। এগুলোর মধ্যে গত বছরের এপ্রিল পর্যন্ত মাত্র ১২টি কার্যক্রম শুরু করে। বাকি ৩৯টি বিশ্ববিদ্যালয়কে স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্থানান্তরের জন্য সময় বেঁধে দিয়ে চিঠি পাঠায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে ১৩টি বিশ্ববিদ্যালয়ে চিঠি পাঠানো হয় ২৯ মে। চিঠিতে একটিকে ৩১ জুলাই, পাঁচটিকে ৩০ সেপ্টেম্বর ও সাতটিকে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে স্থায়ী ক্যাম্পাসে যাওয়ার সময় বেঁধে দেয়া হয়। আগস্টে চিঠি দেয়া হয় ১১টি বিশ্ববিদ্যালয়কে। ওই চিঠিতেও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয়া হয়। পরবর্তীতে অক্টোবরে বাকি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে চিঠি দিয়ে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে সব ধরনের শিক্ষা ও প্রশাসনিক কার্যক্রম স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্থানান্তরের নির্দেশ দেয়া হয়। নির্দেশনা পরিপালনে ব্যর্থ হলে ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি থেকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি বন্ধ থাকবে বলেও উল্লেখ করা হয় চিঠিতে।

বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো স্থায়ী ক্যাম্পাসে না যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে ১৪ জানুয়ারি বৈঠক ডেকেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বৈঠকে স্থায়ী ক্যাম্পাসে না যাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।