সকল শিরোনাম

৥ সড়ক দুর্ঘটনা : মায়া কান্নায় কি লাভ? ডেমরায় ট্রাফিকের ঝটিকা অভিযান ও অপরূত কিশোরী উদ্ধার এমপি হতে শেষ চেষ্টায় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা যারাই ক্ষমতায় আসে তারাই ক্ষমতার অপপ্রয়োগ করে: ড. কামাল রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনে ৫টি খাল খনন করবে ওয়াসা যৌন হয়রানি প্রতিরোধে খসড়া আইনের প্রস্তাব সিসি ক্যামেরার আওতায় রামপুরা ট্রাফিক জোন ঢাকা-৫ আসনে বিএনপি-আ’লীগে একাধিক প্রার্থী, সুবিধাজন অবস্থানে জাপা ফখরুলের বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন রিজভী কালবৈশাখীর কারণে রূপালী ব্যা‍ংকের লিখিত পরীক্ষা বাতিল খালেদাকে জেলে রেখে নির্বাচনের কথা ভাবতে পারে না বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশ গ্রহন না করলে বিএনপি অস্থিত্ব সংকটে পড়বে খালেদা জিয়াকে বাদ দিয়ে জাতীয় নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হতে পারে না নারী ও শিশু নির্যাতন কমছে না কেন? ১৫ ও ১৬ এপ্রিল ঢাকায় বিপিও সামিট উন্নয়নে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে : মেনন সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন আশ্বাসের পরও চালের দাম কমছে না অস্বস্তিতে ক্রেতারা স্বাধীনতার ইতিহাস নতুন প্রজন্মের মাঝে জাগ্রত করতে মাতুয়াইলে আলোচনা সভা উন্নয়নের নামে নদী খাল ভরাট করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী এখনও ৩৫ হাজার কোটি টাকা ফেরৎ দেয়নি পাকিস্তান! উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে আত্মহত্যা আবারো বাড়ছে গ্যাসের দাম মুচলেকা দিলেই সময় পাবে বিজিএমইএ ৪টি প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কৃত করবেন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বিকল্পে জোবাইদা রহমান, আ.লীগেও ভাগ বসাতে তৎপর


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

৥ সড়ক দুর্ঘটনা : মায়া কান্নায় কি লাভ? ডেমরায় ট্রাফিকের ঝটিকা অভিযান ও অপরূত কিশোরী উদ্ধার যৌন হয়রানি প্রতিরোধে খসড়া আইনের প্রস্তাব সিসি ক্যামেরার আওতায় রামপুরা ট্রাফিক জোন ঢাকা-৫ আসনে বিএনপি-আ’লীগে একাধিক প্রার্থী, সুবিধাজন অবস্থানে জাপা খালেদাকে জেলে রেখে নির্বাচনের কথা ভাবতে পারে না বিএনপি নারী ও শিশু নির্যাতন কমছে না কেন? উন্নয়নে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে : মেনন উন্নয়নের নামে নদী খাল ভরাট করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী এখনও ৩৫ হাজার কোটি টাকা ফেরৎ দেয়নি পাকিস্তান! উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে আত্মহত্যা খালেদা জিয়ার বিকল্পে জোবাইদা রহমান, আ.লীগেও ভাগ বসাতে তৎপর বিভিন্ন কলাকৌশলে বেগম জিয়ার মুক্তিকে বিলম্বিত করা হচ্ছে : ফখরুল খালেদা জিয়া দেশনেত্রী থেকে দেশের মানুষের মা হয়েছেন : নজরুল ইসলাম

বিনে পয়সায় জাপানে পড়ালেখার সুযোগ

ছবি স্লাইড, বিশেষ বিভাগ, সকল শিরোনাম | ২০ পৌষ ১৪২৪ | Wednesday, January 3, 2018

জাপানে সরকারি অর্থায়নে উচ্চশিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা। প্রতিবছর জাপানে সরকারিভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়ে থাকে। ১৯৫৪ সালে জাপান সরকারের এই বৃত্তি চালু হয়।

বর্তমানে জাপানে ওই বৃত্তির অধীনে দশ হাজারের মত বিদেশি ছাত্র-ছাত্রী বিভিন্ন কোর্সে পড়াশোনা করছে। ২০১৭ সনের জন্য স্কলারশিপের ঘোষণা করা হয়েছে।

যোগ্যতা: বাংলাদেশের Bachelor/Master Degree (or MBBS degree) পাশ করা শিক্ষার্থীরা মাস্টার্স এবং পিএইচডির জন্য আবেদন করতে পারবে। অবশ্যই জাপানি ভাষা জানতে হবে।

টোফেল, আইইএলটিএস, জিআরই না থাকলেও আবেদন করা যাবে। তবে কিছু কিছু বিশ্ববিদ্যালয় ইংরেজি সার্টিফিকেট চায়।

সুযোগ-সুবিধা: মাসিক বৃত্তি হিসেবে আপনি এক লাখ ৪৫ হাজার ইয়েন করে পাবেন। যা বাংলাদেশি টাকায় এক লাখেরও বেশি। এই স্কলারশিপে শিক্ষার্থীর জাপানে পৌঁছানোর সময়ের ওপর নির্ভর করে কত টাকা দেওয়া হবে তা বিজ্ঞপ্তিতে বিস্তারিত দেওযা আছে।

বিশ্ববিদ্যালয় অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের সেখানে যেতে হবে। এছাড়া যাওয়ার পর প্রয়োজনীয় খরচের জন্য দুই হাজার ইউএস ডলার সঙ্গে নিতে হবে। এরপর যাবতীয় খরচ বিশ্ববিদ্যালয় বহন করবে। এছাড়াও ইন্টারন্যাশনাল হাউজে থাকার ব্যবস্থা করে দেয়া হয়।

বয়স: ১৯৮২ সালের ২ এপ্রিলে বা এর পর জন্ম যাদের তারাই শুধু আবেদন করতে পারবেন।

জাপানের সরকারি এই স্কলারশিপের নাম Monbukagakusho: MEXT (The Ministry of Education, Culture, Sports, Science and Technology).

আবেদনের সময় ইমেইল এর সাবজেক্ট লিখবেন: Application for Japanese Government Scholarship (Monbukagakusho:MEXT). আবেদনের নিয়ম এবং প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র যা লাগবে সেসব লিংকে বিস্তারিত দেওয়া আছে।

এই স্কলারশিপের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানতে চাইলে এবং আবেদন করতে চাইলে ক্লিক করুন: www.mext.go.jp/…/afieldfile/2016/04/22/1369740_02.pdf অথবা www.studyjapan.go.jp/en/toj/toj0302e.html