সকল শিরোনাম

যানজট : গতি নেই; আছে দুর্গতি! ‘ঈদ চাঁদাবাজি’ বন্ধ হউক চালের দাম নিয়ন্ত্রণে আসছে না কেন? ক্ষমতাওয়ালাদের পাহাড় : আর লাশগুলো আমাদের! প্রিয়াঙ্কার প্রেমে পড়েছেন ‘দ্য রক’ সবুজ খেলে শরীরে যা বদলে যাবে! ব্যাংকিং খাতে অর্থমন্ত্রীর ‘পাপ কর’! ভোটের দিতে গিয়ে অর্থমন্ত্রী ভ্যাটের বাজেট দিয়ে ফেলেছেন : ইশতিয়াক রেজা হেফাজত এখন ‘গলার কাটা’ আ.লীগের, ভেতরে-বাইরে সমালোচনা বাড়ছে! শূকরের মাংসে ভ্যাট তুলে দিলেন অর্থমন্ত্রী: মানুষকে বোকা বানালেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে বরাদ্ধ বৃদ্ধি ভোক্তাদের সঙ্গে প্রহসন : ড. শামসুল লংগদুর ঘটনায় ৪০০ জনকে আসামি করে মামলা বাজেট : সরকার বস্ত্রশিল্পের জন্য ভাবুক ধর্ষকদের সাথে ওদের শাস্তিও যেন হয়? রাজধানীর তৃণমূল গোছাচ্ছে আ.লীগ প্রকল্পে প্রকল্পে সংঘর্ষ! বশ্বকবির ১৫৬ তম জন্মবার্ষিকী আজ ব্যাংকে জমে থাকা ৬১৪ কোটি টাকার লভ্যাংশ উধাও কিভাবে রাজনৈতিক নবজাতক থেকে ফ্রান্সের সর্বকনিষ্ঠ প্রেসিডেন্ট হলেন ম্যাক্রোঁ ফ্রান্সের নতুন প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বেওয়ারিশ পরিচয়ে জঙ্গি মারজান ও সাদ্দামের দাফন বজ্রপাতে প্রাণহানি ক্রমেই বাড়ছে আজমপুর ফুটওভার ব্রিজে শ্রমিকদের ভিড় বনশ্রীতে ভাঙা সড়কে জলাবদ্ধতা : দুর্ভোগ মৌসুমি ফলে ভয়াবহ ফরমালিন


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

চালের দাম নিয়ন্ত্রণে আসছে না কেন? ব্যাংকিং খাতে অর্থমন্ত্রীর ‘পাপ কর’! ভোটের দিতে গিয়ে অর্থমন্ত্রী ভ্যাটের বাজেট দিয়ে ফেলেছেন : ইশতিয়াক রেজা হেফাজত এখন ‘গলার কাটা’ আ.লীগের, ভেতরে-বাইরে সমালোচনা বাড়ছে! লংগদুর ঘটনায় ৪০০ জনকে আসামি করে মামলা প্রকল্পে প্রকল্পে সংঘর্ষ! বশ্বকবির ১৫৬ তম জন্মবার্ষিকী আজ ব্যাংকে জমে থাকা ৬১৪ কোটি টাকার লভ্যাংশ উধাও বজ্রপাতে প্রাণহানি ক্রমেই বাড়ছে নাশকতার মামলায় তারেক রহমানসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা বিএনপি-জামায়াত, আওয়ামী-হেফাজত? মন্ত্রিত্ব হারালেও পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের পাশে থাকবেন দুই মন্ত্রী তিস্তার পানি নিয়ে ভারত মস্করা করছে : গয়েশ্বর ট্রাফিক আইন প্রয়োগে জনদূর্ভোগ সৃষ্টি করা যাবে না: ডিএমপি কমিশনার ‘ভারতের এক্সিম ব্যাংকের অর্থ দিয়ে সুন্দরবন ধ্বংস করা হচ্ছে’

ভোটের দিতে গিয়ে অর্থমন্ত্রী ভ্যাটের বাজেট দিয়ে ফেলেছেন : ইশতিয়াক রেজা

জাতীয় সংবাদ, সকল শিরোনাম | ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ | Saturday, June 3, 2017

---নিউজ-বাংলাদেশ, ঢাকা: একাত্তর টিভির বার্তা পরিচালক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা বলেছেন, অর্থমন্ত্রী নিজের দেয়া বাজেট ভলো বলবেন, দুর্বলতা খুঁজে পাবেন না এটাই স্বাভাবিক। বাজেট ঘোষণা হয়েছে ৪ লাখ ২৬৬ হাজার কোটি টাকার। মোট বাজেটে ঘাটতি ১ লাখ ১২ হাজার কোটি টাকা। আমার প্রশ্ন, এই বিশাল ঘাটতি পূরণ হবে কীভাবে? আমার মনে হয়, অর্থমন্ত্রী নির্বাচন সামনে রেখে ভোটের বাজেট দিতে গিয়ে ভ্যাটের বাজেট দিয়ে ফেলেছেন।

২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট বিষয়ে ডিবিসি নিউজ টিভি’র ‘সংবাদ সম্প্রসারণ’ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, বড় আকারের বাজেটের ধারাবাহিকতায় গত কয়েক বছর ধরে বড় বাজেট ঘোষণা করা হচ্ছে। কিন্তু বাস্তবায়ন কতটা হচ্ছে? দেখা যাচ্ছে বাজেট বাস্তবায়নের স্বক্ষমতা ক্রমাগতভাবে কমছে। আমার প্রশ্ন থেকে যায়, তবে বাজেটের আকার বারবার কেন বাজেট বাড়ানো হচ্ছে?

গত অর্থবছরের বাজেট সম্বন্ধে তিনি বলেন, বিগত বাজেট ঘোষণা করা হলো ৩ লাখ ৭৫ হাজার কোটি টাকার। শেষ পর্যন্ত বাজেট সংশোধনও করতে হলো। যা প্রতিবছরই হয়। কিন্তু সেই সংশোধিত বাজেটও শেষপর্যন্ত আমরা বাস্তবায়ন করতে পারিনি।

জনগণকে অন্ধকারে রেখে কৌশলে কর আরোপ করা হচ্ছে উল্লেখ করে ইসতিয়াক রেজা বলেন, মোট বাজেটের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে হলে প্রয়োজন ২ লাখ ৮৮ কোটি টাকার অর্থিক সংস্থান। যার মধ্যে এনবিআর খাত থেকেই আসতে হবে ২ লাখ ৪৮ হাজার কোটি টাকা। যেখানে ৫১ হাজার কোটি টাকাই আসবে ভ্যাট থেকে। কিন্তু ভ্যাট যেহেতু পরোক্ষ কর, আর পরোক্ষ কর সবসময় বিবর্তনমূলক হয় অর্থাৎ জনগণ জানতেও পারে না যে, কিভাবে তার কাছ থেকে কর কেটে নেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, অর্থমন্ত্রী ব্যক্তিগত কর না বাড়ানো ঘোষণা দিয়েছেন। যার মাধ্যমে সরকারের দ্বত পরিকল্পনা দেখতে পাচ্ছি। অন্যদিকে সরকার বলছে, ব্যক্তিগত আয় বেড়েছে। তাহলে ব্যক্তিগত আয় বাড়লে নিয়মানুযায়ী কর, কর দাতার সংখ্যা এবং করাসীমাও বাড়ার কথা। এতে বোঝা যাচ্ছে, সব মিলিয়ে একটা ব্যায় বাড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে!

তিনি বলেন, অর্থমন্ত্রী যেখানেই সুযোগ পেয়েছেন সেখানেই হাত দিয়েছেন। এমনকি সাধারণ জনগণের পকেট থেকে টাকা কিভাবে নেওয়া যায় তারই একটা পরিকল্পনা দেখা যাচ্ছে। ব্যাংক এ্যাকাউন্টের ওপরেও এক্সেস ডিউটি দিয়েছেন। যার ফলে মানুষ ব্যাংক বিমূখ হবে এবং আমার কাছে যেটা মনে হয় সেটা হলো, বড় অংকের টাকা বাইরে পাচার হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।