সকল শিরোনাম

যানজট : গতি নেই; আছে দুর্গতি! ‘ঈদ চাঁদাবাজি’ বন্ধ হউক চালের দাম নিয়ন্ত্রণে আসছে না কেন? ক্ষমতাওয়ালাদের পাহাড় : আর লাশগুলো আমাদের! প্রিয়াঙ্কার প্রেমে পড়েছেন ‘দ্য রক’ সবুজ খেলে শরীরে যা বদলে যাবে! ব্যাংকিং খাতে অর্থমন্ত্রীর ‘পাপ কর’! ভোটের দিতে গিয়ে অর্থমন্ত্রী ভ্যাটের বাজেট দিয়ে ফেলেছেন : ইশতিয়াক রেজা হেফাজত এখন ‘গলার কাটা’ আ.লীগের, ভেতরে-বাইরে সমালোচনা বাড়ছে! শূকরের মাংসে ভ্যাট তুলে দিলেন অর্থমন্ত্রী: মানুষকে বোকা বানালেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে বরাদ্ধ বৃদ্ধি ভোক্তাদের সঙ্গে প্রহসন : ড. শামসুল লংগদুর ঘটনায় ৪০০ জনকে আসামি করে মামলা বাজেট : সরকার বস্ত্রশিল্পের জন্য ভাবুক ধর্ষকদের সাথে ওদের শাস্তিও যেন হয়? রাজধানীর তৃণমূল গোছাচ্ছে আ.লীগ প্রকল্পে প্রকল্পে সংঘর্ষ! বশ্বকবির ১৫৬ তম জন্মবার্ষিকী আজ ব্যাংকে জমে থাকা ৬১৪ কোটি টাকার লভ্যাংশ উধাও কিভাবে রাজনৈতিক নবজাতক থেকে ফ্রান্সের সর্বকনিষ্ঠ প্রেসিডেন্ট হলেন ম্যাক্রোঁ ফ্রান্সের নতুন প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বেওয়ারিশ পরিচয়ে জঙ্গি মারজান ও সাদ্দামের দাফন বজ্রপাতে প্রাণহানি ক্রমেই বাড়ছে আজমপুর ফুটওভার ব্রিজে শ্রমিকদের ভিড় বনশ্রীতে ভাঙা সড়কে জলাবদ্ধতা : দুর্ভোগ মৌসুমি ফলে ভয়াবহ ফরমালিন


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

চালের দাম নিয়ন্ত্রণে আসছে না কেন? ব্যাংকিং খাতে অর্থমন্ত্রীর ‘পাপ কর’! ভোটের দিতে গিয়ে অর্থমন্ত্রী ভ্যাটের বাজেট দিয়ে ফেলেছেন : ইশতিয়াক রেজা হেফাজত এখন ‘গলার কাটা’ আ.লীগের, ভেতরে-বাইরে সমালোচনা বাড়ছে! লংগদুর ঘটনায় ৪০০ জনকে আসামি করে মামলা প্রকল্পে প্রকল্পে সংঘর্ষ! বশ্বকবির ১৫৬ তম জন্মবার্ষিকী আজ ব্যাংকে জমে থাকা ৬১৪ কোটি টাকার লভ্যাংশ উধাও বজ্রপাতে প্রাণহানি ক্রমেই বাড়ছে নাশকতার মামলায় তারেক রহমানসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা বিএনপি-জামায়াত, আওয়ামী-হেফাজত? মন্ত্রিত্ব হারালেও পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের পাশে থাকবেন দুই মন্ত্রী তিস্তার পানি নিয়ে ভারত মস্করা করছে : গয়েশ্বর ট্রাফিক আইন প্রয়োগে জনদূর্ভোগ সৃষ্টি করা যাবে না: ডিএমপি কমিশনার ‘ভারতের এক্সিম ব্যাংকের অর্থ দিয়ে সুন্দরবন ধ্বংস করা হচ্ছে’

লংগদুর ঘটনায় ৪০০ জনকে আসামি করে মামলা

জাতীয় সংবাদ, সকল শিরোনাম | ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ | Saturday, June 3, 2017

পাহাড়িদের বাড়ি-ঘরে আগুন দেয় উত্তেজিত জনতা

রাঙ্গামাটির লংগদুতে যুবলীগ নেতার মৃত্যুর জেরে পাহাড়িদের বাড়ি-ঘরে হামলা ও আগুনের ঘটনায় ১৫ জনের নাম উল্লেখসহ ৩-৪ শ’ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। শনিবার রাঙামাটির লংগদু থানার ওসি মমিনুল হক এ তথ্য জানিয়েছেন।

এদিকে ওই এলাকায় এখনো আতংক বিরাজ করছে। আইনশৃংখলা পরিস্থিতি শান্ত রাখতে ১৪৪ ধারা অব্যাহত রেখেছে প্রশাসন।

শনিবার সকাল পর্যন্ত ওই ঘটনায় ৭ জনকে গ্রেফতারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। তবে দোষীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কের চারমাইল (কৃষি গবেষণা এলাকা সংলগ্ন) নামক স্থানে নুরুল ইসলাম নয়ন নামে এক যুবলীগ নেতার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পরদিন শুক্রবার তার লাশ নিয়ে এক মিছিল থেকে উত্তেজিত বাঙালিরা পাহাড়িদের বাড়ি-ঘরে হামলা করে ভাংচুর ও আগুনে পুড়িয়ে দেয়। এ ঘটনায় ওই এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন।

এদিকে আতংকে বাড়ি-ঘর ছেড়ে যাওয়া পাহাড়িরা এখনো তাদের নিজ নিজ এলাকায় ফিরে আসেনি বলে জানা গেছে।

অপরদিকে গ্রেফতার আতংকে এলাকা ছেড়েছে বাঙালিরাও। এতে পরিস্থিতি এখনো থমথমে রয়েছে।

শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মানজুর মান্নান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারও তার সঙ্গে ছিলেন।

তিনি বলেন, এ ধরনের ঘটনা কাম্য ছিল না। পার্বত্য চট্টগ্রামে যেকোনো মূল্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি বজায় রাখা হবে। এজন্য সবাইকে সচেতন ও ধৈর্যসহকারে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান জেলা প্রশাসক।

লংগদু থানার ওসি মমিনুল হক জানান, হামলার ঘটনায় ১৫ জনের নাম উল্লেখসহ ৩-৪ শ’ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের হয়েছে। দোষীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।

এছাড়া যেকোনো পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে। লংগদুর বিভিন্ন স্থানে সেনাবাহিনীও টহলে রয়েছে।