সকল শিরোনাম

.রূপগঞ্জে পিএসসি পরীক্ষায় অনিয়মের অন্ত:নেই স্বপ্ন-সুখের সংসার করা হলোনা রিমুর : ডেমরায় প্ররোচনায় পড়ে গলায় ফাঁস দিয়ে শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা ডেমরায় পঙ্গুদের মাঝে হুইল চেয়ার ও ক্রাচ বিতরণ শেখ হাসিনা বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী নারী শাসক ধর্মের নামে একটি কুচক্রিমহল শিক্ষিতযুবকদের ভুলপথে নেয়ার ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে: হাবিবুর রহমান মোল্লা এমপি আল-রাফি হাসপাতালের উদ্যোগে চিকিৎসকদল রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শুভ জন্মদিন প্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনা -নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন চলন্ত বাসে গণধর্ষণ করে হত্যার লোমহর্ষক বর্ণনা: আদালতে স্বীকারোক্তি ইউরোপ থেকে অবৈধ বাংলাদেশিদের ফেরত আনতে চুক্তির খসড়া চূড়ান্ত রোহিঙ্গা গণহত্যা বন্ধে আসিয়ানকে ভূমিকা নেওয়ার আহবান থমকে গেছে বিএনপি ঈদে আসছে রনি’র মিউজিক ভিডিও “কোরবানি” সীতাকুণ্ডে অজ্ঞাত রোগে ৯ জনের মৃত্যু সরকার দেশের পরিবেশ ও মানুষকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে: রিজভী সরকার অবাধ তথ্য প্রবাহে বিশ্বাস করে : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে চলেছ ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে বাংলাদেশের বিজ্ঞানীর বিশ্ব অবাক করা আবিষ্কার ‌‘দেশকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্ত চলছে’ দেশে আল্লাহর গজব পড়েছে: এরশাদ দুই নগরে নৌকা চাই… বাহ! ভালইতো… ঢাকায় প্রতি ১১ জনের একজন চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত ‘গাড়ির চাপ দেখলেই মন্ত্রী-এমপিদের ধৈর্য মানে না’ বাংলাদেশকে সমর্থন দেবে থাইল্যান্ড ‘মুসলিমরা ডোনাট খায় না’ গুজবের নেপথ্যে


জান্নাত ও জাহান্নামের অস্তিত্ব

ইসলাম ও জীবন, ছবি স্লাইড, সকল শিরোনাম | ১২ চৈত্র ১৪২৩ | Sunday, March 26, 2017

মাওলানা মুনীরুল ইসলাম :: মানুষের চূড়ান্ত ও চিরস্থায়ী আবাস জান্নাত ও জাহান্নামের অস্তিত্ব সম্পর্কে কোরআন-হাদিসে অনেক প্রমাণ রয়েছে। মিরাজের ঘটনায় হজরত আনাস (রা.) রাসুলুল্লাহ (সা.) থেকে বর্ণনা করেন, ‘…তারপর জিবরাইল (আ.) আমাকে নিয়ে চলতে থাকে। সিদরাতুল মুনতাহা পর্যন্ত পৌঁছলে তাকে কিছু রঙ এসে ঢেকে ফেলে। আমি বুঝতে পারিনি এটি কী? তারপর আমি জান্নাতে প্রবেশ করলাম। জান্নাতকে আমি দেখতে পেলাম মণি-মুক্তার গম্বুজ। আরও দেখতে পেলাম জান্নাতের মাটি হলো মিসক’ (বুখারি: ৩৩৪২, মুসলিম: ১৬২)।



এ হাদিসটি আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের পক্ষে প্রমাণস্বরূপ। তারা বলেন, জান্নাত ও জাহান্নাম মাখলুক তথা আল্লাহর সৃষ্টি এবং জান্নাত আসমানে অবস্থিত।  হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, আল্লাহ তায়ালা জান্নাত ও জাহান্নাম সৃষ্টি করার পর জিবরাইল (আ.) কে জান্নাতে পাঠান এবং বলেন, তুমি জান্নাতের দিকে তাকাও এবং দেখ আমি জান্নাতে জান্নাতিদের জন্য কী কী তৈরি করে রেখেছি। তারপর তিনি জান্নাতে প্রবেশ করেন এবং আল্লাহ তায়ালা জান্নাতিদের জন্য কী কী তৈরি করে রেখেছেন তা দেখেন। তারপর আল্লাহ তায়ালা বলেন, তুমি এখন জাহান্নামে প্রবেশ কর। আল্লাহর কথায় তিনি জাহান্নামে প্রবেশ করলেন, আল্লাহ বললেন, দেখ আমি জাহান্নামিদের জন্য কী কী তৈরি করে রেখেছি। তারপর তিনি জাহান্নামের দিকে তাকিয়ে দেখেন, জাহান্নামের এক অংশ অপর অংশের উপর দাপাদাপি করছে (তিরমিজি : ২৫৬০, নাসায়ি : ৩৭৭২)।



ইমাম তাহাবী (রহ.) বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, জান্নাত ও জাহান্নাম আল্লাহর মাখলুক, কখনো তা ধ্বংস হবে না এবং ক্ষয় হবে না। কারণ, আল্লাহ মাখলুককে সৃষ্টির পূর্বে জান্নাত ও জাহান্নাম সৃষ্টি করেন। আর জান্নাত ও জাহান্নাম উভয়টির জন্য তিনি মাখলুক থেকে অধিবাসী সৃষ্টি করেন। যাদের তিনি জান্নাত দেবেন তা হবে তার পক্ষ থেকে তাদের প্রতি অনুগ্রহ। আর যাদের তিনি জাহান্নামে দেবেন তা হবে তার প্রতি আল্লাহর পক্ষ থেকে ইনসাফ। প্রত্যেকেই তার সুবিধা অনুযায়ী আমল করবে এবং তাকে যেজন্য সৃষ্টি করা হয়েছে সে দিকে ধাবিত হবে। আর ভালো ও মন্দ বান্দার উপর নির্ধারিত (আকিদাতুত তহাবি, পৃষ্ঠা ১২)।



সুতরাং মহান আল্লাহর সৃষ্টি জান্নাত ও জাহান্নামের অস্তিত্ব সম্পর্কে সংশয় পোষণ করার কোনোই সুযোগ নেই।



লেখক : কবি ও ধর্মীয় গবেষক