সকল শিরোনাম

সুষ্ঠু নির্বাচনে দেশ কি সক্ষম? অবৈধ পাকিং, চাঁদাবাজী আর ঘুষের মিশেল হরদম! প্রার্থী না হওয়ার কারণ জানালেন ড. কামাল ফেসবুকে প্রতারণার প্রেমের ফাদেঁ ফেলে কলেজ ছাত্রীকে ব্লাক মেইলিংয়ের অভিযোগ ঢাকা-৫ আসন : ডেমরায় জাতীয় পার্টির গণসংযোগ ও কর্মিসভা ৬ দফা দাবি : ডেমরায় রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকল শ্রমিকদের জনসভা বদলে যাবে ৩০০ ফুট সড়ক অপরাধী শনাক্ত করতে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ছে টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত ঐক্যফ্রন্ট প্রস্তুতি নিচ্ছে, নির্বাচনে আসবে: কাদের পঞ্চগড় থেকে দেশের দীর্ঘতম রুটে ট্রেনচলাচল শুরু বাম জোটের নির্বাচন তফসিল প্রত্যাখ্যান সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে ইসির সাহসী পদক্ষেপ চাই: বি চৌধুরী খেজুরের ভেতর ইয়াবা! ‘আমার বাড়ি ভোলা, পারলে কিছু কইরেন’ আ’লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী ২১ নভেম্বর কোনো অপশক্তি ভর করুক তা কাম্য নয়: নাসিম তাবলিগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রণক্ষেত্র, আহত ১০ দাবি না মানলে নির্বাচন হতে দেয়া হবে না: রাজশাহীতে ফখরুল বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বুঝে পেল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার মনোনয়ন ফরম কিনলেন ওবায়দুল কাদের যে বেটারা আমার গাড়ি ঘুরিয়ে দিয়েছে, আমি ওদের মাথা ঘুরিয়ে দেব: কাদের সিদ্দিকী এই তফসিলে ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে যাবে না সচিব হলেন দুই কর্মকর্তা, ভারপ্রাপ্ত সচিব ৩ জন


মস্তিষ্ক সম্পর্কে শতাধিক নতুন তথ্য পেলেন বিজ্ঞানীরা

এক্সক্লুসিভ, ছবি স্লাইড, বিজ্ঞান প্রযুক্তি, সকল শিরোনাম | ১৯ শ্রাবণ ১৪২৩ | Wednesday, August 3, 2016

---মস্তিষ্ক মানবদেহের জটিলতম অংশ। বিজ্ঞান এখনও মস্তিষ্ক সম্পর্কে পুরোপুরি জানতে নিরন্তর প্রচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে মানুষের মস্তিষ্কের ‘সেরিব্রাল কোরটেক্স’-এ ১০০টি নতুন স্থানের খোঁজ পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। মানুষের মস্তিষ্ককে সাধারণত তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে। একটা অংশের নাম ‘ফোরব্রেইন’। দ্বিতীয় অংশটির নাম ‘মিডব্রেন’ এবং তৃতীয়টির নাম ‘হিন্ডব্রেইন’। এর মধ্যে ‘ফোরব্রেন’ মূলত ‘সেরিব্রাল কোরটেক্স’-এর একাধিক লেয়ার নিয়ে গঠিত। মস্তিস্কের এই অংশ মূলত উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন। ‘সেরিব্রাল কোরটেক্স’ প্রধাণত আমাদের অনুধাবন ক্ষমতা থেকে শুরু করে আমাদের শরীরের বিভিন্ন মুভমেন্ট-সহ বেশ কিছু ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়াকে নিয়ন্ত্রণ করে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- যে কোন সমস্যার সমাধান।

মস্তিষ্কের এই অংশকে মূলত স্নায়ু টিস্যুর বহিরাবরণ বলা হয়। এটা দেখতে অনেকটা থকথকে এবং আয়তনে একটা ছোটখাটো পিৎজ্জার মতো। ‘সেরিব্রাল কর্টেক্স’-এর ঘনত্ব নিয়ে স্নায়ু বিশেষজ্ঞরা বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করেন। সেই তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায় এই কর্টেক্সের ঘনত্ব কোথাও ১ মিলিমিটার, আবার কোথাও এর ঘনত্ব ৪.৫ মিলিমিটার।

বিভিন্ন দিক থেকে এই কোরটেক্সের ছবিও সংগ্রহ করা হয়। দেখা হয় কীভাবে রক্ত প্রবাহ ঘিরে রেখেছে এই কোরটেক্সকে।

 এরজন্য কোরটেক্সের একটি ম্যাপিংও করা হয়। যার নাম এফএমআরআই। ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির স্নায়ু বিশেষজ্ঞ দলের অন্যতম ম্যাথু গ্লেসার এর মতে, “কর্টেক্সের একটা অংশে নতুন সীমানা রয়েছে। রক্ত প্রবাহের সূত্র ধরে যত এগুনো যাচ্ছে ততই এই সীমানাটা বাড়ছে।” এতদিন ‘সেরিব্রাল কোরটেক্স’-এর সীমানা নিয়ে যে ধারণা ছিল তার সঙ্গে তুলনামূলক বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, নতুন যে সীমানার সন্ধান পাওয়া গেছে সে সম্পর্কে আগে কোন তথ্য ছিল না। কোরটেক্সের এই নতুন সীমানাকে বিভিন্নভাবে বিভক্ত করে শতাধিক নতুন স্থানের উপস্থিতি দেখা যায় যা আগে বিজ্ঞান জানত না। এই গবেষণা মানুষের মস্তিস্ক সম্পর্কে বিজ্ঞানীদের আরও সুক্ষ্ণাতিসুক্ষ্ণ ধারণা দেবে বলে মনে করা হচ্ছে।