সকল শিরোনাম

নিবার্চন উপলক্ষ্যে র‌্যাবের নিরাপত্তা বলয়ে রূপগঞ্জ ঢাকা-৫ আসন : ডেমরায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণা সভা সুষ্ঠু নির্বাচনে দেশ কি সক্ষম? অবৈধ পাকিং, চাঁদাবাজী আর ঘুষের মিশেল হরদম! প্রার্থী না হওয়ার কারণ জানালেন ড. কামাল ফেসবুকে প্রতারণার প্রেমের ফাদেঁ ফেলে কলেজ ছাত্রীকে ব্লাক মেইলিংয়ের অভিযোগ ঢাকা-৫ আসন : ডেমরায় জাতীয় পার্টির গণসংযোগ ও কর্মিসভা ৬ দফা দাবি : ডেমরায় রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকল শ্রমিকদের জনসভা বদলে যাবে ৩০০ ফুট সড়ক অপরাধী শনাক্ত করতে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ছে টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত ঐক্যফ্রন্ট প্রস্তুতি নিচ্ছে, নির্বাচনে আসবে: কাদের পঞ্চগড় থেকে দেশের দীর্ঘতম রুটে ট্রেনচলাচল শুরু বাম জোটের নির্বাচন তফসিল প্রত্যাখ্যান সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে ইসির সাহসী পদক্ষেপ চাই: বি চৌধুরী খেজুরের ভেতর ইয়াবা! ‘আমার বাড়ি ভোলা, পারলে কিছু কইরেন’ আ’লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী ২১ নভেম্বর কোনো অপশক্তি ভর করুক তা কাম্য নয়: নাসিম তাবলিগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রণক্ষেত্র, আহত ১০ দাবি না মানলে নির্বাচন হতে দেয়া হবে না: রাজশাহীতে ফখরুল বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বুঝে পেল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার মনোনয়ন ফরম কিনলেন ওবায়দুল কাদের যে বেটারা আমার গাড়ি ঘুরিয়ে দিয়েছে, আমি ওদের মাথা ঘুরিয়ে দেব: কাদের সিদ্দিকী


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

নিবার্চন উপলক্ষ্যে র‌্যাবের নিরাপত্তা বলয়ে রূপগঞ্জ ঢাকা-৫ আসন : ডেমরায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণা সভা ঢাকা-৫ আসন : ডেমরায় জাতীয় পার্টির গণসংযোগ ও কর্মিসভা ৬ দফা দাবি : ডেমরায় রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকল শ্রমিকদের জনসভা বদলে যাবে ৩০০ ফুট সড়ক অপরাধী শনাক্ত করতে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ছে ঐক্যফ্রন্ট প্রস্তুতি নিচ্ছে, নির্বাচনে আসবে: কাদের পঞ্চগড় থেকে দেশের দীর্ঘতম রুটে ট্রেনচলাচল শুরু খেজুরের ভেতর ইয়াবা! ‘আমার বাড়ি ভোলা, পারলে কিছু কইরেন’ আ’লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু কোনো অপশক্তি ভর করুক তা কাম্য নয়: নাসিম তাবলিগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রণক্ষেত্র, আহত ১০ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বুঝে পেল বাংলাদেশ শেখ হাসিনার মনোনয়ন ফরম কিনলেন ওবায়দুল কাদের

দেহব্যবসা ছেড়ে আবারও ফিরছেন অভিনয়ে

ছবি স্লাইড, জীবন যেমন, সকল শিরোনাম | ১৬ শ্রাবণ ১৪২৩ | Sunday, July 31, 2016

 

মাত্র ১১ বছর বয়সে ‘মাকড়ি’ ছবির জন্য জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলেন শ্বেতা বসু। তারপর ২০১৪ সালে দেহব্যবসার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছিলেন।

দু’মাস পুনর্বাসন কেন্দ্রে থাকার পর সম্প্রতি আবারও ফিরেছেন অভিনয়ে। নতুন অধ্যায় শুরু স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি ‘ইন্টিরিয়র ক্যাফে নাইট’ দিয়ে।

দেহব্যবসা থেকে আবারও অভিনয় জীবনে ফিরে আসাকে ‘কামব্যাক’ বলতে নারাজ শ্বেতা। তার মতে এটা ছিল বিবর্তন।

সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে এমন কথাই বলেছেন এ অভিনেত্রী।

জাতীয় পুরস্কার পাওয়া। তারপর ওরকম একটা ঘটনা। তারপর আবার অভিনয়ে ফিরে আসা। কামব্যাকটা কেমন লাগছে? এমন প্রশ্নে শ্বেতা বসু বলেন, কীসের কামব্যাক? আমি কামব্যাকে বিশ্বাস করি না।

তিনি বলেন, আমি অভিনেত্রী। সব সময় অভিনেত্রীই ছিলাম। মাঝের সময়টা একটা বিবর্তনের মতো। আমি জানি আমি কী করেছি। অভিনয় ছাড়া কখনও কিছু করিনি, ভাবিওনি। তাই আমি মনে করি না এটা কোনও কামব্যাক।

‘ইন্টিরিয়র ক্যাফে নাইট’ স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি সম্পর্কে শ্বেতা বলেন, নবীনের সঙ্গে একটা চুম্বনের দৃশ্য রয়েছে। দৃশ্যটি করতে কোনো অসুবিধে হয়নি। ওটাকে আমি ওভাবে চুম্বনের দৃশ্য হিসেবে দেখিইনি।

তিনি বলেন, দৃশ্যটায় আমাদের কাঁদতে কাঁদতে চুমু খেতে হয়েছিল। সেটা বরং কঠিন ছিল। নবীন অনেক বেশি ঘাবড়ে গিয়েছিল! ওকে আমিই বুঝিয়েছিলাম যে, এটা কোনও ব্যাপারই নয়। দু’জনেই ওটা কাজ ভেবেই করেছিলাম